USING GEARLAUNCH ANALYTICS

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

ইউজিং গিয়ারলঞ্চ অ্যানালিটিক্স

যখন একটি সাকসেসফুল স্টোর ক্রিয়েট করার কথা আসে, আন্ডারস্ট্যান্ডিং ইওর মেট্রিক্স ইজ এ কী। এটি আপনাকে আপনার প্রোডাক্ট এবং ক্যাম্পেইনগুলো ভালভাবে পারফর্ম করছে কিনা তা বুঝতে সহায়তা করবে। যেখানে আপনার অডিয়েন্সরা আপনাকে অনলাইনে খুঁজে পাচ্ছেন এবং আপনাকে মার্কেটিং ইম্পর্ট্যান্ট ডিসিশন নিতে সহায়তা করবে।

ড্যাশবোর্ড ওভারভিউ

আপনার স্টোরটি কীভাবে পারফর্ম করছে তার একটি ওভারভিউ পাওয়ার জন্য  আপনার মেইন গিয়ারলঞ্চ ড্যাশবোর্ড একটি গুড প্লেস । আপনি এখান থেকে আপনার পারচেজ , আপনার প্রফিট , স্টোর ভিজিট এবং কনভার্শন রেট চেক করে নিতে পারবেন। কী কী খুঁজে বের করা উচিত এবং ইনফরমেশনগুলো কীভাবে আপনাকে একটি সাকসেসফুল স্টোর তৈরি করতে সহায়তা করবে তা বুঝতে আপনাকে হেল্প করার জন্য আমরা আপনার ক্যাম্পেইন স্টেটাস এর প্রতিটি এরিয়া ব্রেকডাউন করে যাচ্ছি !

আপনার ড্যাশবোর্ডের লেফট সাইডে “ক্যাম্পেইন স্টেটস ” নামক এরিয়ার অভ্যন্তরে আপনার সব স্ট্যাটিস্টিক্যাল ব্রেকডাউন হয়। আপনার ক্যাম্পেইন স্টেটে, আপনি আপনার ক্যাম্পেইন মেট্রিকসগুলি দেখার জন্য বেশ কয়েকটি অপশন পাবেন। আপনি আপনার প্রতিটি ক্যাম্পেইন এর জন্য ভিজিট ,প্রফিট ,অডিয়েন্স ও রেশিও ,আপনার আপসেল, ক্যানসেল আইটেম এবং ফাইনালি মার্কেটিং ভেরিয়েবল গুলো সর্ট আউট করতে পারবেন। কখনও কখনও আপনার ক্যাম্পেইন এর প্রতিটি পার্টকে ব্রেক ডাউন করে ফেলা ভাল, যাতে আপনি বুঝতে পারবেন কী পরিবর্তন করতে হবে এবং নেক্সট ক্যাম্পেইনে কিভাবে আপনার রেভিনিউ ইনক্রিজ করতে পারবেন।

শো প্রফিট

আপনার ক্যাম্পেইন স্টেট টেবিলে, আপনি কখন আপনার মেট্রিক্স গুলো দেখতে চান তার টাইম পিরিয়ড চুজ করুন।

তারপর “শো প্রফিট ” বক্সটি সিলেক্ট করুন। আপনার টেবিলটি প্রথমে আপনার সবচেয়ে প্রফিটেবল ক্যাম্পেইনটি এডজাস্ট করবে এবং অটোমেটিক্যালি লিস্টেড করবে।

নোট:

প্রতিটি ক্যাম্পেইন এর জন্য আলাদা আলাদা কনভার্শন রেট থাকবে। একটি ইম্পর্ট্যান্ট কন্সিডারেশন হল যখন আপনার অনেক বেশি ফিউযার সেলস চলছে, তখন আরও বেশি অ্যাডএর মাধ্যমে টেস্ট করাও অনেক বেটার ক্যাম্পেইন হতে পারে। হায়ার কনভার্শন রেটের মানে হলো রাইট এড সেট সাথে ডিজাইনের প্রতি অনেক বেশি ইন্টারেস্ট গ্রো করা এবং এটি আপনার রেভিনিউর জন্যেও বেস্ট আউটপুট দিতে পারে।

আপনি যখন আপনার ক্যাম্পেইনে নিজেই ক্লিক করেন, তখন আপনি আরও ডিটেলইস ইনফরমেশন সহ একটি পেজে যাবেন। আপনার কনভার্শন রেটটি এমন একটি মূল মেট্রিক আপনার জন্য যা আপনি আপনার ফিউচার ক্যাম্পেইনের জন্যেও ফলোয়াপ রাখতে পারেন এবং আপনার সাইট থেকে কোনো কিছু কেনা অডিয়েন্সদের পার্সেন্টেজের কথা আপনাকে জানিয়ে দেয় খুব সহজেই। এই বিষয়টিতে ফোকাস করা অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মেট্রিক এবং আপনি আপনার এডভার্টাইজমেন্ট এর ডলারগুলো হায়ার পারফরমিং ক্যাম্পেইনেই খরচ করতে চাইবেন।

কনভারসেশন রেট = নাম্বার অফ অর্ডার / নাম্বার অফ ইউনিক ভিজিটর

আপনি যখন আপনার ক্যাম্পেইনের ডিটেলস দেখতে চাইছেন , আপনি ভেরিয়েবলের লিস্টটি আগে স্ক্রল করতে পারেন এবং নিচের দিকে প্রফিট এনহ্যান্সমেন্ট এবং প্রোডাক্ট লিস্ট খুঁজুন । প্রোডাক্ট ব্রেক ডাউন মানে প্রতিটি প্রোডাক্ট টাইপ বা টি-শার্ট স্টাইলে কতগুলো অর্ডার হলো। প্রফিট এনহ্যান্সমেন্ট দেখায় কোন সেলস প্রমোশনটি সবচেয়ে বেস্ট কাজ করেছে।

কেন এটি কোন ব্যাপার ?

কোন ক্যাম্পেইনটি সবচেয়ে প্রফিটেবল ছিল সেটি বুঝতে পারা আপনাকে আপনার মার্কেটিং ফোকাস সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নিতে অনেক বেশি সহায়তা করবে এবং কোন ডিজাইন বা কোন প্রোডাক্ট নিয়ে নেক্সট ক্যাম্পেইনে কাজ করবেন সেটিও বুঝতে হেল্প করবে। যদি একটা ডিজাইন আপনার টোটাল প্রফিটের কারণ হয়ে যায় , আপনি ওই ডিজাইনের উপর আরও বেশি অ্যাড চালানো বা আপনার পরবর্তী ক্যাম্পেইন রান করার কোথাও বিবেচনা করতে পারেন।

শো ভিজিট

ভিজিট ’ আপনাকে কোন ক্যাম্পেইন ,রেগার্ডলেস অফ লোকেশন সহ কতগুলো মানুষ ভিজিট করছে তা জানতে এবং দেখতে সহযোগিতা করে।কিছু মার্কেটিং ভেরিয়েবল আপনি বিবেচনা করতে পারেন :

  • আপনি কি সবগুলো ক্যাম্পেইনে একি অ্যাড চালিয়েছেন?
  • আপনি কি সবগুলো ক্যাম্পেইনে ডিসকাউন্ট দিয়েছেন?
  • আরও মোর সাকসেসফুল ক্যাম্পেইন এবং লেস সাকসেসফুল ক্যাম্পেইন মধ্যে পার্থক্য কী?
এর মানে কী?

যদি ভিজিট এবং আপনার কনভারসেশন রেটের মধ্যে একটি বিশাল পার্থক্য থাকে, এটি আপনার ডিজাইনের মধ্যে জেনারেল ইন্টারেস্ট এর  অভাব ইন্ডিকেট করতে পারে অথবা আপনার এড এবং অ্যাকচুয়াল অফার মধ্যে সংযোগ বিচ্ছিন্ন । আপনার মার্কেটিং এর এফোর্টস টি কাজ করছে এবং কোনটিতে এক্সট্রা অ্যাডজাস্টমেন্ট প্রয়োজন হতে পারে তা সিলেক্ট করতেও এটি আপনাকে অনেক বেশি হেল্প করতে পারে।

কেন এটি কোন ব্যাপার ?

আপনার ওয়েবসাইটটিতে আপনি যে ট্র্যাফিক ড্রাইভ করছেন তা হল ক্যাম্পেইনটির সাকসেস রেশিও মাধ্যমে রেভিনিউ লিড এর দিকে যাওয়া অথবা মার্কেটিং স্ট্র্যাটিজিগুলো আপনার ইফেক্টিভনেস বাড়াতে অপরিহার্য। এটি আপনার এড বা আপনি যে ক্যাম্পেইন রান করছেন তার সফলতাও ইঙ্গিত করতে পারে।

শো ভিজিট এন্ড রেশিও

আপনার ড্যাশবোর্ডে, আপনি একটি ‘শো ভিজিটর এন্ড রেশিও ’ চেক বক্সটি দেখতে পাবেন। আপনি যখন এই বক্সটি সিলেক্ট করেন, নোটিশ করতে পারেন যে আপনার ট্র্যাফিক রিলেটেড দুটি ডিফারেন্ট নম্বর আছে।

এর মানে কী বোঝাচ্ছে ?

যখন রিগার্ডলেস অফ লোকেশন এর মোট ভিজিটর সংখ্যা, যেমন অডিয়েন্স কতবার আপনার ক্যাম্পেইন ভিজিট করেছিল সেটিই বিবেচনা করেই ইউনিক অডিয়েন্স নাম্বার ইন্ডিকেট করে। রেশিও আসলে আপনার কনভারসেশন রেটের কথা উল্লেখ করছে এবং এটি আপনার ইউনিক অডিয়েন্স এর মাধ্যমে অর্ডার সংখ্যা ডিভাইড করেন। আপনি ওভারঅল আরও ভাল পারফর্ম করে এমন ক্যাম্পেইনে আপনার এফোর্টস আরও অনেক বেশি ফোকাস করতে চাইবেন স্বাভাবিক ভাবেই। হাই কনভারসেশন রেট রয়েছে এমন ক্যাম্পেইনে আপনি এক্সট্রাভাবে যা কিছু করছেন তার একটি নোট ক্রিয়েট করে রাখুন । আপনার এড কপি কি ডিফারেন্ট ? আপনি কি বিভিন্ন ক্যাম্পেইন রান করছেন ? আপনি ইমেইল বা সোশ্যাল স্ট্রেটিজি গুলোতে বেশি সময় স্পেন্ড করেছেন?

কেন এটি কোন ব্যাপার ?

আপনার কনভারসেশন রেট আপনাকে আপনার মার্কেটিং এফোর্ট এর সাকসেস, আপনার ডিজাইন , আপনার পছন্দসই প্রোডাক্ট এবং আরও অনেক কিছু সম্পর্কে ধারণা দিবে। আপনার কোন এডটি সবচেয়ে বেশি পারফর্ম করছে এবং কোন এডটি অফ করে দেয়া উচিত তা বোঝার জন্য সময় নেওয়া অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যখন নিয়মিতভাবে আপনার ক্যাম্পেইন গুলো মনিটর করেন তখন ট্র্যাফিক ড্রাইভিং শুরু করতে আপনার বিশাল বাজেটের প্রয়োজন হয় না।

শো আপসেল

আপনি যখন ‘শো আপসেল ’ অপশনে ক্লিক করেন, তখন আপনি আপনার ক্যাম্পেইনে ইনক্লুড করার জন্য যে আইটেমগুলো সিলেক্ট করেছেন এবং কোনটি আপসেল এর ক্ষেত্রে সাকসেস হয়েছিল সে সম্পর্কে অনেক ইনফরমেশন পাবেন।

এর মানে কী?

আপনার যদি জিরো সেলস নিয়ে কোনো একটি আপসেল রেকর্ড থাকে তাহলে হতে পারে আপনার প্রোডাক্টগুলো নিয়ে রিকন্সিডার করতে হবে অথবা আপসেল স্ট্রেটিজিতে ইউজ করছেন সেই ডিজাইন।

কেন এটি কোন ব্যাপার ?

আপসেল গুলো অর্ডার অনুযায়ী আইটেমের সংখ্যা বাড়িয়ে তুলে এবং রাইট প্রোডাক্ট ,ডিজাইন এবং স্ট্রেটিজি, আপনি আরও অনেক আইটেম সেলস করার জন্য খুঁজে বের করতে পারবেন এবং আপনার ওভার অল রেভিনিউ বাড়িয়ে তুলতে পারবেন। বিভিন্ন প্রোডাক্ট এবং ডিজাইনের সাহায্যে আপনার আপসেল স্ট্রাটিজি টেস্ট করুন এবং দেখুন কোনটি বেস্ট পারফর্ম করে।

শো ক্যানসেল আইটেম

আপনার যদি কোনও আইটেম ক্যানসেল হয়ে থাকে, তাহলে সেটি ‘Canceled Items ’ কলামে শো হবে।

এর মানে কী?

এগুলো এমন আইটেম বা অর্ডার যা কাস্টমাররা প্রাইমারি অর্ডার দেয়ার পরে ক্যানসেল করে দিয়েছেন ।

কেন এটি কোন ব্যাপার ?

কাস্টমাররা তাদের অর্ডার ক্যানসেল করার বিভিন্ন কারণ থাকতে পারে তবে সবচেয়ে বেশি সাধারণ কারণগুলো ডিজাইনের ভুল বা মাইন্ডসেট চেঞ্জ এর কারণে হয়ে থাকে। যদিও কোনো কাস্টমার শুধুমাত্র তাদের মাইন্ডসেট চেঞ্জ করলে আপনি অনেক কিছু করতে পারবেন না, আপনাকে আলাদা ভাবে ডিজাইনের হাই রেট ক্যানসেলেশন ইনভেস্টিগেট করতে হবে ! এটি কাট অফ ডিজাইনের মতো সাধারণ কিছু হতে পারে যার জন্য এডজাস্টমেন্ট প্রয়োজন,টেক্সট এর টাইপ এবং অন্যান্য গ্রাফিক রিলেটেড প্রবলেম। ডিজাইনটি আপডেট করা অর্ডার ক্যানসেল কমাতে সহায়তা করতে পারে।

শো মার্কেটিং ভেরিয়েবল

আপনার মার্কেটিং ভেরিয়েবলগুলো ট্র্যাক করার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ মেট্রিক। এটি আপনাকে জানতে সহযোগিতা করে যে আপনার ট্র্যাফিক সম্পর্কে আপনার কী জানা দরকার, যেমন কোন এডগুলো সবচেয়ে বেশি পারফর্ম করে, কোন সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম সবচেয়ে বেশি কার্যকর এবং কোন প্রোডাক্টটি আপনার অডিয়েন্সদের কাছে সবচেয়ে বেশি ইন্টারেষ্টিং।

এর মানে কী?

মার্কেটিং ভেরিয়েবলের লিস্ট টি যখন আপনি প্রথমে তাদের দেখেন তখন তা ওভারহেল্মিং হতে পারে। প্রতিটা লিঙ্ককে আপনার স্টোরের ট্র্যাফিক ড্রাইভের জন্য আলাদা ইউআরএল হিসাবে থিঙ্ক করুন। আপনি যখন আপনার ‘অ্যাডভার্টাইজ’ ট্যাবে যান, আপনি সেই নির্দিষ্ট ইউআরএল ভিজিট এবং অর্ডার সংখ্যা ট্র্যাক করার জন্য ভেরিয়েবল গুলি সহ আপনার নিজস্ব ইউআরএল তৈরি করতে সক্ষম হবেন।

উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি আপনার ক্যাম্পেইন টি নিজের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে চান এবং ফেসবুক থেকে কতজন অডিয়েন্স ড্রাইভ করছেন তা ট্র্যাক করতে চান তাহলে আপনার গিয়ারলঞ্চ ড্যাশবোর্ডের ইউআরএল যেতে পারেন এবং ‘fb1’ এর মান সহ ‘1’ হিসাবে 

কী টি ইন্টার করতে এবং শেয়ার করতে পারেন আপনার পেজের পেরামিটার সহ। 

তারপর,আপনি আপনার ড্যাশবোর্ডে আপনার ট্র্যাফিক ট্র্যাক করতে পারবেন এবং দেখতে পারবেন যে ভেরিয়েবল কতগুলি ভিজিট ও অর্ডার প্রোডিউসড করে।
নোট : নাম (কী) অবশ্যই ০৩ বা ততোধিক অক্ষরের লং হতে হবে। আপনি যদি একটি আলাদা এড প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করেন তবে তারা প্রায়ই আপনার জন্য সেই ভেরিয়েবলগুলো প্রোভাইড করে যা আপনি আপনার গিয়ারলঞ্চ ড্যাশবোর্ডে ট্র্যাক করতে পারেন।

কেন এটি কোন ব্যাপার ?

আপনার ট্র্যাফিককে বোঝা বা তাদের সম্পর্কে জানা আলটিমেটলি আপনার মার্কেটিং এফোর্টসের মূল বিষয়। এটি আপনাকে আপনার অডিয়েন্সকে বুঝতে সহায়তা করে, কোন এডগুলো রান করা যায় তা বুঝতে,কোন মার্কেটিং এফোর্টস গুলো কাজ করছে না এবং কোন মার্কেটিং এফোর্টসগুলো সবচেয়ে বেশি সাকসেসফুল তা বুঝতে সহায়তা করে। সময়ের সাথে সাথে আপনি আপনার অডিয়েন্সকে দেখে,আপনার বিজনেস এর জন্য আরও ভাল সিদ্ধান্ত নিতে সক্ষম হবেন এবং প্রিন্ট অন ডিমান্ড স্টোরে খুব সহজেই সাকসেস খুঁজে বের করতে পারবেন।

মার্কেটিং চ্যালেঞ্জিং হতে পারে তবে আপনি যখন নিজের গিয়ারল্যাঞ্চ ড্যাশবোর্ডে মেট্রিক গুলো বুঝতে সময় নিবেন, তখন আপনি খুঁজে পাবেন এটি আপনার আসল সাফল্যের মূল চাবিকাঠি !

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

8 EASY TIPS FOR WORKING FROM HOME SUCCESSFULLY

সফলভাবে বাড়ি থেকে কাজ করার ৮ টি সহজ টিপস ২০২০ সালে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড গ্লোবাল প্যানডেমিক এর কারণে রিমোট ওয়ার্কারদের পরিমাণে ইনক্রিজ হয়েছে এবং অফিসে কাজ

SEPTEMBER TRENDS REPORT

সেপ্টেম্বর  ট্রেন্ডস রিপোর্ট সেপ্টেম্বরের আসার সাথে সাথেই, ফল সিজন এর বাতাস বইতে শুরু করে। আবহাওয়া শীতল হতে শুরু করে এবং সর্বত্র লোকেরা আসন্ন ছুটির কথা