PRINT 101

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

প্রিন্ট ১০১

ডিপিআই এর ইম্পোর্টেন্স বোঝা

আপনার গ্রাহকদের এক্সপেক্টেশন অনুযায়ী প্রোডাক্ট ডেলিভারি করার জন্য আপনার আর্টওয়ার্কটি সঠিকভাবে ফর্ম্যাট করা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।  ফর্ম্যাটিংয়ে আপনার ডিজাইনের রেজ্যুলেশন প্রপারলি প্রসেস করা এবং প্রিন্টের জন্য পারফেক্ট সাইজের হওয়াটা নিশ্চিত করার জন্য বিষয়গুলো ইনক্লুডেড রাখতে হবে। একটি ডিজিটাল ফাইলের পিক্সেল ডাইমেনশন ক্ল্যারিটি ডিটার্মাইন করবে এবং ইমেজ রেজুলেশন ফাইলটি থেকে আপনি প্রিন্ট করতে পারবেন।

পিক্সেল ডাইমেনশন ঃ

এটি ইমেজ সহ মোট পিক্সেল (ডট) এর মোট নাম্বারটিকে বোঝায়। এপারেল প্রোডাক্ট গুলোর ক্ষেত্রে , আমরা ৩৬০০ × ৪৮০০ ইউজ করাটা  রেকোমেন্ড করি।

এটি আপনার ডিজিটাল ইমেজগুলোর ইঞ্চি সাইজটাকে বোঝায়। এপারেল প্রোডাক্ট গুলোর ক্ষেত্রে , আমরা ১২” × ১৬” ইউজ করাটা রেকোমেন্ড করি।

ডিপিআই (ডট পার ইঞ্চি)ঃ

এই নাম্বারটি ইমেজ পিক্সেল এর ডাইমেনশন এবং ডিজিটাল ইমেজের সাইজের ইউজের উপর ক্যালকুলেট করে করা হয়। ফটোশপে এই নাম্বারটি “রেজ্যুলেশন” হিসাবে দেখানো হয়। আমরা ৩০০ ডিপিআই ইউজ করাটা রেকমেন্ড করি।

উদাহরণ: যদি আমাদের কাছে একটি ডিজিটাল ইমেজ থাকে যা ১৮০০ × ২৪০০ এবং ১২ “x ১৬” সাইজের হয় তাহলে আমাদের কাছে ১৫০ ডিপিআই থাকবে, যা এপিয়ারেল প্রোডাক্ট গুলোর উপর প্রিন্ট করার জন্যে খুব লো হবে।  

(১৮০০ পিক্সেল ওয়াইড) / (১২” ওয়াইড) = ১৫০ ডিপিআই

৩০০ ডিপিআই রেজাল্টের জন্য পিক্সেল ডাইমেনশন ৩৬০০ × ৪৮০০ ইনক্রিজ করার ক্ষেত্রে আমাদের ফটো এডিটিং টুল ইউজ করতে হবে।

সেইম ডিজিটাল ফাইল এমন অনেকগুলো প্রিন্ট ক্রিয়েট করতে পারে যার মধ্যে অনেক বেশি ডিপিআই আছে কারণ আপনি যখন সেইম ফাইলটি একটি স্মলার প্রোডাক্ট (যেমন একটি টি-শার্ট) এবং বিগ প্রোডাক্ট (যেমন একটি পোস্টার) প্রিন্টের জন্য ইউজ করেন, প্রিন্ট এরিয়াগুলো খুব ডিফারেন্ট হয় এবং আপনি ডিফারেন্ট সাইজের স্পেসগুলো ফিল করার জন্য সেইম নাম্বার অফ ডট ব্যবহার করছেন। এটি আপনার প্রিন্টটিকে পিক্সেলটেড করে এপিয়ার করবে। 

প্রতিটি প্রোডাক্টের টাইপের জন্য সঠিক ডাইমেনশন আছে তা কনফার্ম করতে আমাদের গাইড ফলো করুন।

নীচে দুটি ইমেজ রয়েছে যা শো করে যে কীভাবে ডিপিআই প্রিন্ট করার সময় একটি বিশাল পার্থক্য নিয়ে আসতে পারে। টপ ইমেজটি পারফেক্ট ডিপিআই প্রেজেন্ট করে যখন নীচের ইমেজটি খুব কম ডিপিআই প্রেজেন্ট করছে।

ডিরেক্ট টু গার্মেন্টস (ডিটিজি) প্রিন্টিংয়ের প্রসেস

ডাইরেক্ট টু গার্মেন্ট প্রিন্টিং (ডিটিজি) একটি স্পেশালাইজড ইঙ্কজেট টেকনোলজি ইউজ করে টেক্সটাইল প্রিন্টার প্রসেস । ডিটিজি প্রিন্টারগুলো পোশাকটিকে একটি ফিক্সড পজিশনে ধরে রাখে এবং বিশেষ কালি ইউজ করে যা ফ্যাব্রিকের সাথে সরাসরি প্রিন্টের টপে অ্যাপ্লাই করা হয় এবং গার্মেন্টস ফাইভার দ্বারা হয় এবজোর্ভ করা হয়। এই ফিচারগুলো কিছু অন্যান্য টেক্সটাইল প্রিন্টিং টেকনিক এর সাথে ডিস্টর্শন কে প্রিভেন্ট করে।

ডিটিজি প্রিন্টিংটি ফাইবারের মধ্যে কালিগুলো ছড়িয়ে দেয় এবং অন্যান্য প্রিন্টিং এর টেকনিক এর বিপরীতে যা মেটেরিয়ালস এর উপরে কালি বা ভিনাইল অ্যাপ্লাই করে। কালিগুলো ইন্জেকটিং এর ফলে ফ্যাব্রিকের সাথে এটি বন্ডিং হয়ে যায় এবং এমন একটি প্রিন্ট তৈরি করে যা সফট -টু-দ্যা -টাচ ফিল দেয় যা অন্যান্য প্রিন্টিং টেকনিকের চেয়ে বেশি ফেইড রেজিস্টেন্ট।

ডিটিজি প্রিন্টিং পুরো আর্টওয়ার্ক নিয়ে কাজ করে। এখানে স্ক্রিন প্রিন্টিংয়ের মতো কালার সেপারেশন এবং লেয়ার এর প্রয়োজন নেই। ফলস্বরূপ, কোনও নাম্বার অফ টোনের লিমিটেশন ছাড়াই ফুল কালার স্পেকট্রাম রিপ্রোডিউস করতে পারে এবং ডিটেইলস আর্টওয়ার্ক সম্পর্কে এক্সসিলেন্ট ক্ল্যারিটি এচিভ করতে পারে।

ডিটিজি প্রিন্টিং কাস্টমাইজেশন এবং কালার প্রোফাইলিংয়ের জন্য আরও ভাল কালারের রিপ্রেজেন্টিং এবং ম্যাচিং করতে সহায়তা করে। আমরা বিভিন্ন সাবস্ট্রেট এবং কালারের প্রিন্টের জন্য ক্যালিব্রেট এবং প্রোফাইল করতে পারি।

ডিটিজি প্রিন্টের জন্য ব্যবহৃত কালিগুলো ওয়াটার বেসড, ইকো ফ্রেন্ডলি এবং সেইফ ।

যেহেতু ডিটিজি প্রিন্ট একটি নতুন টেকনোলজি, ইম্প্রুভমেন্ট জন্য ইনোভেশন রয়েছে এবং গিয়ারলঞ্চের প্রিন্টার্সগুলো সর্বদা এই ইনোভেশনের জন্য সম্মুখভাগে থাকে।

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

Monthly Live about Facebook Marketing

Here we covered how to do Facebook marketing in effective ways which will drive more traffics and how you can raise the possibility to increase

1000 T-shirt Mockup

এখানে আপনারা পাচ্ছেন ১০০০ টিশার্ট-এর ফ্রি মকআপ! আপনার পছন্দ অনুযায়ী যেকোনো ডিজাইন নিয়ে কাজ করতে পারবেন একদম ফ্রি-তে। তাই দেরি না করে ডাউনলোড করে নিন