HOW TO REDUCE SHOPPING CART ABANDONMENT

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

কীভাবে শপিং কার্ট এবানডনমেন্ট হ্রাস করবেন

 শপিং কার্ট এবান্ডনমেন্টন এমন একটি ঝামেলাপূর্ণ বিষয় যেটা বেশিরভাগ অনলাইন ষ্টোরে ঘটে থাকে।

এক সমীক্ষায় উঠে আসে যে ২০১৯ সালে  শপিং কার্ট এবান্ডনমেন্টের হার গড়ে ৭৭.১৩%। ইহা বিশাল সংখ্যা এবং আপনি এই বিষয়কে গুরত্ব দিচ্ছেন না, তাহলে সম্ভবত আপনি টাকা হারাতে যাচ্ছেন। যাইহোক না কেন বেশ কয়েকটি স্ট্যাটির্জি আপনার ষ্টোরে ইমপ্লিমেন্টের মাধ্যমে শপিং কার্ট এবান্ডনমেন্ট কমানোর সুযোগ রয়েছে।

অফার মাল্টিপাল সিকিউর পেমেন্ট অপশন 

কাস্টমারকে এটা জানানো খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে তারা আপনার সাইটকে বিশ্বাস করতে পারে যখন তারা মাল্টিপাল সিকিউর পেমেন্ট অপশনের মাধ্যমে পারচেজ করছে। এটায় ট্রাস্ট ও ট্রান্সপারেন্সি তৈরি করে যা আপনার গ্রোয়িং ইকমার্স ব্যবসার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

গিয়ার লঞ্চ প্ল্যাটফর্ম সেলারদের মাল্টিপল অপশন এলাও করে তাঁদের কাস্টমারদের জন্য এবং সে অপশনগুলো যে সেইফ এন্ড সিকিউর সেটা আশ্বাস দিয়ে থাকে।

এছাড়াও ই ইউ মার্কেটের জন্যও আমরা সিকিউর অপশন প্রোভাইড করে থাকে। আমাদের ই ইউ পেমেন্ট অপশনের তালিকাগুলো দেখে নিতে পারেন।

আপনার অনলাইন ষ্টোর যে ধরনেরই প্ল্যাটফর্ম ইউজ করুক না কেন, প্রতিটি পদক্ষেপে ট্রাস্ট তৈরি করা এটা আপনার ব্যবসার গ্রো করতে হেল্প করবে এবং শপিং কার্ট এবান্ডনমেন্ট হ্রাস করবে!

আপনার কাস্টমারের শপিং কার্ট ভিজিবল রাখুন

কিছু কাস্টমার এমনভাবে আপনার ইকমার্স ওয়েবসাইট এমনভাবে উইজ করবে যেন মনে হবে তারা সেখানেই উপস্থিত আছেন। তারা আপনার পেইজগুলো ক্লিক করবে এবং তাঁদের অবসর সময়ে আপনার ষ্টোরকে পর্যবেক্ষণ করবে। মার্কিন ক্রেতাদের মধ্যে ৫৮.৬% রিপোর্ট করেছে যে তারা কার্ট এবান্ডন করেছে কারন তারা কিনতে রাজি ছিলেন না তারা “শুধু ব্রাউজ” করছিলেন।

একটি উপায়ে ”জাস্ট ব্রাউজিং” মেন্টালিটি থেকে দূর করা যায় আর সেটা হল শপিং কার্ট ভিজিবল করে রাখা যা তাঁদের ইন্টারেস্টড প্রোডাক্টকে মনে করিয়ে দেয় এবং তাঁদের শপিং কার্টে অ্যাড করবে। এছাড়াও রিপোর্টে জানা যায় যে ২০% কাস্টমার  শপিং কার্ট এবান্ডন করেছেন কারন তারা অর্ডার করবার সময় মূল্য দেখতে পায় না। আপনি হয়তো ওয়েবসাইটে কোন প্লাগইন অথবা ডিজাইন ইউজ করতে পরেন যা কাস্টমারকে শপিং কার্টে শোকেস হিসেবে দেখাবে যা এবান্ডনমেন্ট হ্রাস করবার পথ তৈরি করবে।

এলাউ গেস্ট চেকআউট

কাস্টমার একটি দ্রুত ও সহজ চেকআউট প্রসেস চেয়ে থাকেন এবং যতসম্ভব রিপোর্টে দেখা যায় ৩১% কাস্টমার কার্ট এবান্ডন করেন যখন প্রয়োজনীয় একাউন্ট সেট আপ করতে বলা হয়। কাস্টমারের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে যখন একাউন্ট সেট আপ করতে বলা হয় তখন সেটা ভালো মার্কেটিং প্রাকটিস হচ্ছে। কিন্তু এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে শপিং কার্ট এবান্ডনমেন্ট এর পসিবিলিটি হ্রাস করে তাদেরকে অপশন দেয়া। যদি না আপনি অপশন দিচ্ছেন তাহলে, সম্ভবত আপনি রিভিনিউ হারাতে চলছেন।

আপনি যদি তারপরও চান কাস্টমার সাইন আপ করুক, তাহলে পারচেজ পরবর্তী স্টেপে এই অংশ রাখা যেতে পারে। আপনার সেল লসের আশা থাকে না এবং কাস্টমার আরও বেশী আগ্রহী হন যখন তাঁদের পারচেজ এর পরে ইনফরমেশন দিতে বলা হলে।

 ইউজ এক্সিট ইন্টেন্ট পপ-আপ 

আপনার ওয়েবসাইটে এক্সিট ইন্টেন্ট পপ-আপ ইউজ করা হচ্ছে কাস্টমারকে ধরে রাখার আরেকটি উপায় যাতে তারা কার্ট পিছে ফেলে যেতে না পারে। অনেকসময়, কাস্টমার ফাইনাল পারচেজ এর আগে আরো রিসার্চ করতে চায়।

আপনার এক্সিট ইন্টেন্ট পপ-আপ স্ট্যাটির্জিতে কিছু ভ্যালু অ্যাড করে কাস্টমারকে অফার করতে হবে যখন সে আপনার সাইট থেকে বের হয়ে যাবে বলে সিদ্ধান্ত নেয়। আপনি যেসব ভ্যালু অফার অ্যাড করতে পারেনঃ

  • ডিস্কাউন্ট
  • ফ্রী শিপিং অফার
  • কন্টেস্ট
  • অ্যাডিশনাল আইটেমে অফার

আপনার সাইটের প্রতিটি পেইজে এক্সিট ইন্টেন্ট পপ-আপ থাকার দরকার নেই,কিন্তু ডেফিন্টেলি প্রোডাক্ট পেইজে, চেকআউট পেইজে, ক্যাটাগরী পেইজে অ্যাড করতে হবে। আই কেচিং যেন হয় সেটা সিউর করুন এবং এমন অফার দিন যাতে কাস্টমার ট্রানজেকশন কমপ্লিট করতে প্রলোভিত হয়।

প্রমোশন রান করুন

কাস্টমার সবসময় অনলাইনে বেস্ট ডিলের খোঁজে থাকে এবং কিছু টাকা বাঁচানোর পথ খুঁজে থাকে। ”Statista” দ্বারা সার্ভেতে উঠে আসে যে ৮% কাস্টমার কার্ট এবান্ডন করে থাকে যখন তারা ডিসকাউন্ট কোড খুঁজে না পায় ও বাকি ৪৬% ডিসকাউন্ট কোড কাজ না করলে কার্ট এবান্ডন করে।

আপনার মতে অনলাইন ষ্টোরের মানে কি? তাদেরকে ডিসকাউন্ট দিয়ে ধরে রাখা যখন তারা কিনতে আসে!

ডিসকাউন্ট কোড ক্রিয়েট করুন এবং আপনার চেকআউট প্রসেস হিসেবে ডিল করুন। আপনি যেসব সেল আইটেম প্রোমোট করতে চাচ্ছেন সেগুলো কন্সিডার করুন, আর্জেন্সিতে কাস্টমারকে বলুন যে প্রোডাক্ট সেলআউট হয়ে গিয়েছে অথবা সেটা এখন এভেইলেবল না যখন তারা ফিরে আসবে। 

মেক দ্য প্রসেস ইফোর্টলেস

কাস্টমার ইজি ও ইফোর্টলেস চেকআউট প্রসেস এক্সপেক্ট করে। সেখানে যদি অনেক প্রসেস হয় এবং অধিক ইনফরমেশন দিতে হয়, তাহলে সম্ভবত আপনার ব্যবসা হারাতে যাচ্ছে। এক্সপেরিয়েন্স কে স্ট্রীম করুন এবং অপ্রোয়জনীয় পেইজ মুছে ফেলুন। এছাড়াও এটা সিউর করুন যে আপনার ষ্টোর মোবাইল ফ্রেন্ডলী কিনা। কাস্টমার তাঁদের মোবাইল থেকে শপিং করতে ভালোবাসে। স্ট্রীমলাইন এক্সপেরিয়েন্সের একটি পদ্ধতি হিসেবে কিছু অনলাইন ষ্টোর, প্রসেস শেষ না হবার আগ পর্যন্ত কাস্টমার থেকে ইনফরমেশন নেয় না।

আরেকটি উপায় হচ্ছে কাস্টমার ইনফরমেশন ক্যাপচার করার সেটা হল প্রসেস শেষে (রিমেম্বার মি) অপশন যুক্ত করা তাহলে নেক্সট সেল করবার সময় কাস্টমারকে দ্বিতীয়বার ইনফরমেশন অ্যাড করতে হবে না। একাউন্ট ক্রিয়েটয়ের মাধ্যমে হ্যাপি কাস্টমার তৈরি হওয়া মানে হচ্ছে আপনি তার ইনবক্সে ডাইরেক্ট মার্কেট করাবার ক্ষমতা পেয়েছেন।

এবান্ডনেড কার্ট ইমেইল

আপনার কাস্টমারকে বিশেষ পদ্ধতিতে ইঙ্কারেজ করতে পারেন এবং সেটা হচ্ছে এবান্ডমেন্টন কার্ট ইমেইল দিয়ে পারচেজ কমপ্লিট করা। এমন বহুল অটোমেশন সার্ভিস আছে যারা সেলারদের সাহায্য করে এবং কিছু প্রিন্ট অন ডিমান্ড প্লাটফর্ম আছে যারা এই অটোমেশন প্রোভাইড করে।

আপনার ইমেইল এ যেগুলো অ্যাড করা উচিত ঃ

  • তারা যে আইটেম ছেড়ে দিয়েছিল সেগুলো ইমেজসহ কার্টে দিয়ে দিতে হবে
  • কিছু ডিস্কাউন্ট ও ইন্সেন্টিভ দিয়ে তাঁদের রিটার্ন করানো এবং পারচেজ কমপ্লিট করনো।
  • এ সেন্স অফ আর্জেন্সি ।

এটা আপনাকে সিউর করতে হবে যেন সাবজেক্ট লাইন ক্যাচি হয় এবং যার কারণে ইহা আপনাকে কপি করবার ক্রিয়েটিভ সুযোগ দিয়ে থাকবে। আপনার কাছে যদি রিওয়ার্ড প্রোগাম থাকে, তাহলে তাদের রিমাইন্ড দিন পয়েন্ট সম্পর্কে এবং সেগুলো স্পেন্ড করতে ইঙ্কারেজ করুন।

কনক্লুশন

 শপিং কার্ট এবান্ডমেন্টন এমন কিছু যেটা প্রতিটি ইকমার্স ব্যবসায়ের মালিকদের দৃষ্টিতে থাকা   দরকার। স্ট্যাস্টির্জি ও ভিন্ন ভিন্ন ট্যাক্টিস তৈরির মাধ্যমে আপনি দেখতে পারেন যে কোনটা আপনার অডিয়েন্সদের জন্য বেস্ট। মনে রাখবেন যে, যখন  শপিং কার্ট এবান্ডমেন্টন কমে যাবে, তখন আপনার রেভিনিউ বাড়বে। 

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

10 TIPS FOR NAMING YOUR BLOG OR BUSINESS

আপনার ব্লগ বা বিজনেস নেমিং এর জন্য ১০ টিপস যখন কোনো বিজনেস বা ব্লগ শুরু করা হয় তখন অন্ট্রোপ্রেনারদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে সিদ্ধান্ত নিতে

8 EASY TIPS FOR WORKING FROM HOME SUCCESSFULLY

সফলভাবে বাড়ি থেকে কাজ করার ৮ টি সহজ টিপস ২০২০ সালে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড গ্লোবাল প্যানডেমিক এর কারণে রিমোট ওয়ার্কারদের পরিমাণে ইনক্রিজ হয়েছে এবং অফিসে কাজ