FINDING YOUR NICHE

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

ফাইন্ডিং ইউর নিশ

ডিসকভার নিশ মার্কেট

এখন একটি নিশ প্রমিসিং কিনা সেটা কীভাবে কনফার্ম করবেন তা আপনাকে জানতে হবে, নিশ মার্কেটের জন্য ডিজাইন ইন্সপিরেশন এবং মার্কেটিং স্ট্যাস্টির্জির জন্য ডিসকভার করবার সময় এখনই। কীভাবে এবং কোথা থেকে শুরু করবেন?

ট্রাই সোশ্যাল লিসেনিং

স্পেসিফিক টপিকসের ভিতর কনভারসেশন মনিটরিং করবার প্রসেস হচ্ছে সোশ্যাল লিসেনিং, তাদের লেভেরাগিং করতে কমিউনিটির জন্য কন্টেন্ট ক্রিয়েট করা হয় যেটা নিয়ে তারা প্যাশোনেট বেশী থাকে। এটি যখন আপনার টার্গেট অডিয়েন্স রিসার্চ ছোট হয়ে আসে। সেই ইনফরমেশনকে ইউজ করুন, প্রথমে আপনার টার্গেট ডেমোগ্রাফিককে হোস্ট করার সম্ভাব্য সামাজিক চ্যানেলগুলি নির্ধারণ করুন। স্টার্ট করার জন্য এই গাইডটি একটি ভালো জায়গা

একবার আপনি সাইটগুলো তালিকাভুক্ত করলে আপনার অডিয়েন্সদের একত্রিত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি, আপনার নিশ সম্পর্কিত হ্যাশট্যাগ এবং গ্রুপে ডাইভিং শুরু করুন। ইনফ্লুয়েন্সার পেইজগুলোতে কমেন্টস ও এঙ্গেজমেন্ট খুঁজে বের করুন যেনো কোন টপিকের উপর ইউজারদের সেন্টিমেন্ট পরিমাপ করা যায়। 

এক্সাম্পল হিসেবে, আপনার নিশ যদি ইয়াং মম হয় যারা কিনা ইয়োগার প্রতি ইন্টারেস্টেড, তাহলে আপনার নিশ মার্কেট সম্ভবত ইন্সটাগ্রামের উপর। “ইয়োগা মম” হ্যাশট্যাগটিতে এক মিলিয়নেরও বেশি ইনস্টাগ্রাম পোস্ট রয়েছে এবং হ্যাশট্যাগ ইয়োগাতে রয়েছে ত্রিশ মিলিয়নেরও বেশি রয়েছে। উল্লেখিত রেজাল্টগুলো নিয়ে আসতে হ্যাশট্যাগ “ইয়োগাকোটস” ইউজ করুনঃ

আপনার সার্চেস থেকে পপুলার পোস্টগুলো আপনার ডিজাইন আইডিয়াকে ইন্সপায়ার করবে কারন তারা আসবে ডাইরেক্টলি আপনার কমিউনিটি থেকে। 

অন্যান্য সোশ্যাল সাইট এবং কমিউনিটিস থেকে আপনার নিশের জন্য মার্কেট ডিস্কভার করতে কিছু সিমিলার পদ্ধতি গ্রহন করতে পারেন। এখানে কিছু লিস্ট দেয়া হলো যা আপনাকে সোশ্যাল লিসেনিং এ হেল্প করবেঃ

  • ফেসবুক
  • টুইটার
  • ইন্সটাগ্রাম
  • পিন্টারেস্ট 
  • রেডিট
  • ফ্লিকার
  • মিডিয়াম

 সোশ্যাল লিসেনিং এর চ্যানেলগুলো খুঁজে বের করবার মূল চাবিকাঠি হচ্ছে যেখানে নিশ সবচেয়ে বেশী এক্টিভ থাকে। আপনার সার্চকে গাইডলাইন করবার জন্য উল্লেখিত কোয়েশ্চেন ইউজ করতে পারেনঃ

  • ওয়াট সাইট উড ক্যাটার টু দিস কমিউনিটি মোস্ট এফেক্টেভলি?
  • ওয়াট আর দ্যা নিডস অ্যান্ড অ্যাডিশনাল ইন্টারেস্টস অফ দিস গ্রুপ?
  • হয়ার ইজ দিস কমিউনিটি মিটিং অ্যান্ড হেবিং কনভারসেশন অনলাইন?
  • ইজ দেয়ার সামওয়ান অলরেডিং সেলিং মার্চেন্ডাইজ টু দিস কোম্পানি?

এই রিসোর্স দিয়ে, আপনার ক্ষমতা থাকবে এক্টিভদের খুঁজে বের করবার, যারা কিনা নিশ কমিউনিটিতে রিলেশনশিপ ডেভেলপ করবার জন্য এবং আপনার ডিজাইন দিয়ে অডিয়েন্সকে কাস্টমারে কনভার্ট করতে কাজ করছে। নেক্সটে, আমরা ডিজাইনের এমন এলিমেন্ট শিখব যা আপনার অডিয়েন্সকে ক্যাপ্টিভেট অ্যান্ড রেসোনেট করবে।

ওয়াট ডু কাস্টমার সার্চ ফর?

আপনার স্টোরের স্পেশ্যালিটির উপর নির্ভর করে, ভিজিটরস এর সার্চের ধরন অনেক পরিবর্তিত হতে পারে। যাইহোক না কেন, ডাটা ট্র্যাক করার অর্ডার দিতে এবং প্রপার এডজাস্টমেন্ট তৈরিতে, আমরা সাজেস্ট করব গুগল দ্বারা সার্চ অ্যানালিটিক সেট আপ করতে। সার্চ ট্রেকিং সেট আপ করতে এই গাইড ফোলো করুন!

ওয়াট সার্চএইভেবল

প্রোডাক্ট ক্যাটাগর (আই.ঈ” এপারেল”)

প্রোডাক্ট নেম (আই.ঈ” হানেস ট্যাগ্লেস টি”)

ক্যাম্পেইন নেম আই.ঈ” লিমিটেড ইডিশন”(স্মাইল)

ক্যাম্পেইন ডেসক্রিপশন

ক্যাম্পেইন পাথ (ইউআরএল)

ক্যাম্পেইন ট্যাগ

আমি কি পারবো আমার সকল কাস্টমারকে একটি লিস্টে আনতে?

ইয়েস, আপনার সকল কাস্টমারকে অ্যাড করতে পারবেন “অল কাস্টমার” সেলেক্টিং এর মাধ্যমে যখন আপনার অডিয়েন্স সেটিং আপ হবে। যাইহোক, ডাটা দেখায় যে টার্গেটেড অ্যান্ড স্পেসিফিক ইমেইলস ভালো পারফর্ম করে, তাই আমরা সাজেস্ট করবো আপনার ট্যাগকে ইউটিলাইজ করতে এবং কাস্টমার সেগমেন্ট ক্রিয়েট করতে।

আপনি কি এই ৯টি ভুল করছেন আপনার নিশ নিয়ে?

মার্কেটিং ক্যাম্পেইন এর বেশীরভাগ টেস্টিং ফেসে জানা যায় যে সাকসিড হবে নাকি ফেইল হবে। আপনি যদি একটি নির্দিষ্ট আনপ্রফিটএভেল ক্যাম্পেইন এর সাথে এগোতে থাকেন – যদিও আপনি সব স্টেপ সঠিক নিয়ে থাকেন – আপনার ফলাফল সবসময় আপনাকে হতাশ করবে।

আপনার নিশ যে কোন ক্যাম্পেইন এর জন্য একটি কী কম্পোনেন্ট। এখানে অনেক ভুল তৈরি করা এবং আপনার সকল স্ট্যাটির্জি ভেঙে পড়বে। এই পোস্টটি সমস্ত ভুলগুলো এড়ানো এবং সঠিকভাবে নিশ মার্কেটিং নিয়ে আসার সাথে সম্পর্কিত।

১. ইউ হেভ নো আইডিয়া ওয়াট ইজ একচুয়ালি কন্সাইডেরেড এ নিশ

নিশ মার্কেটিং খুবই সহজ; এমন একটি গ্রুপের কাছে কোনো প্রোডাক্ট অথবা আইডিয়া টেইলরিং করা হয় যার ফলে কমন ইন্টারেস্ট তৈরি হয় এবং তাদের মাঝে সেল করা হয়। তবু, এই পথে, কিন্তু কিছু নতুন আগতরা ইকমার্স স্পেস ইহাকে ভুল চোখে দেখে থাকে।

এক্সাম্পল হিসেবে, “প্যারেন্টস” একটি পপুলার টপিক হতে পারে তবে এটি খুব বিস্তৃত। “নিউ মম,” “নতুন ফাদার,” এমনকি “সকার মম” তে আরও এক স্তর করে ফোকাস ডাউন করতে ট্রাই করুন।

“প্যারেন্টস” এর মতো ব্রড টপিকসগুলোতে একটি হিউজ পটেনশিয়াল অডিয়েন্স থাকে কিন্তু ইহা অনেক কম্পিটিশন নিয়ে আসে, এবং তাই ফার্স্ট প্লেসে নিশ মার্কেটিংএর পারপোজ নষ্ট হয়ে যায়। আপনার গোল হবে যতটা সম্ভব স্পেসিফিক নিশ খুজে বের করা।

২. ইউ আর অনলি ইন ইট ফর মানি

একটি টপিক যা আপনি কেয়ার করেন অথবা লুক্রেটিভ দেখতে এমন বিষয় নিয়েই আপনার চারপাশ তৈরি করা উচিত। মোস্ট এক্সপার্ট্ররা আপনার প্যাশনের দিকে যেতে আপনাকে গাইড করবে,  কিন্তু এই শব্দগুলো আপনাকে মিসলিড করতে পারে। 

আপনাকে আপনার প্যাশনের দিকে স্টেরিং করার কারন হলো আপনি সেই বিষয় নিয়ে ইন্টারেস্ট থাকবেন এবং আপনার নলেজ আপনাকে এক্সট্রা অ্যাডভান্টেজ দিয়ে থাকবে। আমরা যদি এডভাইস পিসকে আরো সহজ করে তুলি তাহলে, “আপনি নিশকে ফলো করুন যেখানে আপনার ইন্টারেস্ট আছে কারন কিছু সময়ের জন্য আপনাকে তার সাথে থাকতে হবে।” এই এডভাইসগুলো সিমপ্লিফাই করা উচিত কারন আপনি অন্ধভাবে একটি প্যাশনের পিছনে ছুটতে পারেন না যা আপনাকে জিরো ইন্টারেস্ট জেনেরেট করে দিবে এবং একইভাবে এমন একটি টপিক যা সম্পর্কে আপনার ধারনা নেই।

৩. ইউ আর বিল্ডিং ইউর স্ট্যাটির্জি অন এ প্রোডাক্ট, নট এ প্রবলেম

যদিও আপনি কিছু সেল এদিক সেদিক থেকে ম্যানেজ করতে পারেন, প্রোডাক্টের উপর নির্ভর করে আপনার ব্যবসার কেন্দ্রমূল করাটা মোটেও সুইটেবল না। এর কারন হল, আপনি কখনই বুঝবেন না প্রয়োজনীয়তাগুলো যেগুলো পারচেজকে পরিচালনা করে। তাদের প্রয়োজনীয়তা বুঝতে না পারার মানে হচ্ছে পরিবর্তনের সাথে আপনি সেগুলো পুর্ন করতে ব্যর্থ হয়েছেন।

যদি আপনি আপনার ইন্টারেস্টকে সঠিক পথ দেখাতে পারেন এবং একটি স্পেসিফিক গ্রুপের কিছু প্রবলেম বের করতে পারেন তাহলে নিশ মার্কেটিং কাজ করবে। প্রবলেম বের করুন অথবা যারা সল্যুশন খুঁজছে তাদেরকে, এরপর কন্টেন্ট ক্রিয়েট করুন যেটা সল্যুশন অফার করবে এবং কমিউনিটির সাথে শেয়ার করবে। পথের মধ্যে, আপনার প্রোডাক্টকে প্রমোট করবার অপর্চুনিটি খুঁজে পাবেন যেখানে আপনার দেয়া সল্যুশনের সাথে সংযুক্ত থাকবে।

৪. ইউ রিলে টু মাচ হেভিলি অন গুগল সার্চ

কোন কিছু পপুলারিটির জন্য গুগল সার্চ একটি গুড গ্যাগ হিসেবে কাজ করতে পারে কিন্তু এটাই আপনার একমাত্র ইনডিকেটর না। স্ট্যাটিস্টা ও পার্সলি দ্বারা একটি স্টাডিতে উঠে আসে যে, সার্চ ইঞ্জিনের মাধ্যমে মাত্র ৩১.৮% কন্টেন্ট খুঁজে পাওয়া যায়। বাকি সবগুলো সোশ্যালমিডিয়া নেটওয়ার্ক, ইমেইল, রেফারেল, এবং ডাইরেক্ট সোর্সে এর কম্বিনেশনে আপনার কাছে চলে আসবে। 

গুগল ইনডিকেটরে টু পপুলার অথবা আনপপুলার হবার বিষয়টিতে নিশ যে প্রয়োজনীয় না এটা তাই বোঝায়। অনেক সাকসেসফুল মার্কেটাররা রেগুলারলি সোশ্যাল নেটওয়ার্ক, ফোরাম, এবং অন্যান্য ট্রাফিক সোর্স ইউজ করে থাকে তাদের নিশ খুঁজবার জন্য।

৫. ইউ আর লুকিং ফর এন ইজি উইন উইথআউট পুটিং ইন দ্যা ওয়ার্ক

প্রতিটি নিশের জন্য ওয়ার্ক প্রয়োজন হয় যেটা আপনাকে প্রোফিট হয়ে ফিরিয়ে দিবে। অন্যদের থেকে একটু বেশী প্রয়োজনগুলোকে গ্রান্ট করুন, তাহলে পয়েন্টগুলো একই থেকে যায়ঃ জিরো ওয়ার্ক ছাড়া আপনি টাকা তৈরি করতে পারবেন না- ইহা বেশী সময় নিচ্ছে বলে মনে করবেন না কখনোই। 

রাঙ্কের ভিতর বজায় থাকার জন্য এবং আপনার নিশের সাথে কম্পেটেটিভ রিমেইন রাখতে, আপনি কম্পেটিটর থেকে আরো বেশী ভ্যালু অফার করবেন- যা কিনা আরো হেল্পফুল কন্টেন্ট নিয়ে আসতে থাকবে অথবা আরও এঙ্গেজ কমিউনিটি বিল্ডিং করবে।

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

10 TIPS FOR NAMING YOUR BLOG OR BUSINESS

আপনার ব্লগ বা বিজনেস নেমিং এর জন্য ১০ টিপস যখন কোনো বিজনেস বা ব্লগ শুরু করা হয় তখন অন্ট্রোপ্রেনারদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে সিদ্ধান্ত নিতে

8 EASY TIPS FOR WORKING FROM HOME SUCCESSFULLY

সফলভাবে বাড়ি থেকে কাজ করার ৮ টি সহজ টিপস ২০২০ সালে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড গ্লোবাল প্যানডেমিক এর কারণে রিমোট ওয়ার্কারদের পরিমাণে ইনক্রিজ হয়েছে এবং অফিসে কাজ