CUSTOMER ENGAGEMENT

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

কাস্টমার এনগেজমেন্ট

কাস্টমার এনগেজমেন্ট এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যার সাহায্যে আপনার অনলাইন কাস্টমারদের উপস্থিতি বৃদ্ধি করতে পারবেন এবং আপনার কাস্টমারদের সাথে দীর্ঘমেয়াদী সম্পর্ক গড়ে তোলার জন্য মূল হাতিয়ার হচ্ছে এই কাস্টমার এনগেজমেন্ট। আপনার ব্র্যান্ড ও ওভারঅল স্যাটিস্ফেকশন এর মাধ্যমে এটা বোঝাতে পারেন যে আপনি কাস্টমারদের এক্সপেরিয়েন্সকে কেয়ার করেন।

এটি বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ যখন অসুবিধার সময় অডিয়েন্স সাথে সম্পর্ক তৈরিতে সাহায্য করে। কোভিড-১৯ মহামারী চলাকালীন, আপনি আপনার কাস্টমারদের কাছে থেকে জানতে চাইতে পারেন যে তারা যে লড়াইগুলি করছেন সে সম্পর্কে আপনি সচেতন, তবে তাদের প্রয়োজনের প্রতি সেন্সেটিভ হন এবং আপনার কথাগুলো প্রাসঙ্গিক রাখুন। যেখানে প্রাসঙ্গিক মনে হবে সেখানে আপনার ম্যাসেজ ও এনগেজমেন্ট কৌশল  অ্যাডজাস্ট করুন।

কাস্টমার এনগেজমেন্ট কি?

কাস্টমার এনগেজমেন্ট হচ্ছে এমন একটি সুগঠিত পরিমাপ যেখানে আপনার কাস্টমারদের লাইফ-সাইকেলে প্রতিটি স্টেপে আপনার কোম্পানির ইন্টারেকশন পর্যালোচনা করা হয়।

এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে:

  • সোশ্যাল মিডিয়া।
  • মেইল।
  • সোশ্যাল মিডিয়া চ্যাট।
  • আপনার ওয়েবসাইটে কমেন্ট।

কাস্টমার ব্র্যান্ডগুলোর কাছে থেকে “হিউম্যান” ইন্টারেকশন আশা করে থাকে। অনলাইন ষ্টোর এ কাস্টমার-সেন্ট্রিক এনগেজমেন্ট ট্যাক্টিস হচ্ছে সাফল্যর চাবিকাঠি। বেইন অ্যান্ড কোম্পানির দ্বারা একটি গবেষণা সমীক্ষার ফলাফল দেখায় যে কাস্টমার রিটেনশন ৫% বৃদ্ধিতে মোট আয়ের ২৫% অংশ বৃদ্ধি পায়। কাস্টমার সবসময় বলে থাকে যে তারা এনগেজড ব্রান্ড এর প্রতি বিশ্বস্ত থাকতে বেশি পছন্দ করে।

আপনি কীভাবে এনগেজমেন্ট ড্রাইভ করবেন?

ইফেক্টিভ্লি এনগেজমেন্ট ড্রাইভের জন্য দরকার আপনার অডিয়েন্সদের ভালোভাবে জানা। আপনারা জানেন যে তারা কারা, তারা কি খুঁজছে, এবং কি কন্টেন্ট তাদের জন্য ভালো। আপনি যদি আপনার অডিয়েন্সদের ভালোভাবে না জানেন, তাহলে গুরুত্বপূর্ণ, এনগেজিং কন্টেন্ট সরবরাহ করতে অসুবিধা হবে। আপনার ব্যবসায়ের ভাল স্ট্র্যাটিজি করতে আপনার টার্গেট অডিয়েন্সদের নিয়ে গবেষণা করতে সময় নিন।

আপনি আপনার অডিয়েন্সদের জানতে পারা মানে হচ্ছে সেটাও জানতে পারা যে তারা কি কি প্লাটফর্মে বেশি নিযুক্ত থাকে। সবচেয়ে কার্যকর এনগেজমেন্ট কৌশল হচ্ছে কিছু প্লাটফর্মে ও কন্টেন্ট নির্ধারিত করা যেখানে সবচেয়ে বেশী অডিয়েন্স পাওয়া যায়।

ইমেইল

ইমেইল এখনও কাস্টমার এনগেজমেন্ট এর জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ এবং সেটি তাদের ইনবক্সে  মিট করার প্রচুর সুযোগ তৈরী করে দেয়। তাদেরকে ডিসকাউন্ট, সেলস অথবা বিভিন্ন সার্ভেতে ফিডব্যাক দেওয়ার মাধ্যমে ভ্যালু প্রোভাইড করুন।

আপনার ইমেইল স্ট্যাস্টির্জিতে এমন কয়েকটি ইমেল যুক্ত করতে হবে সেগুলো হলোঃ

  • ওয়েলকাম ইমেইল।
  • ট্রানসেকশনাল ইমেইল।
  • নিউজলেটার।
  • নতুন পণ্য এবং ডিজাইন পর্যাপ্ত করা।
  • শপিং কার্ট এবানডনমেন্ট ইমেইল।
  • সেলস অথবা ডিসকাউন্ট।

ইমেইল স্ট্রাটির্জি তৈরি করা হলো ইনকারেজমেন্ট এনগেজমেন্ট এর একটি অংশ। আপনার ইমেইল কখনো আপনার ব্যবসায় সাহায্য করবে না যদি না কাস্টমার ইমেলগুলো না খুলে দেখে! সেরা ইমেলগুলির জন্য আপনার যা প্রয়োজনঃ

  • প্ররোচিত সাবজেক্ট লাইন।
  • মোবাইল ফ্রেন্ডলি ইমেইল।
  • এনগেজিং কন্টেন্ট।
  • আকর্ষণীয় ডিজাইন।

আপনাকে যদি ইমেলগুলির সাথে স্ট্রাগ্লিং করতে হয় তাহলে, আপনার প্রতিযোগীর কয়েকটি ইমেলের জন্য সাইন আপ করার বিষয়টি বিবেচনা করুন। তাদের স্ট্রাটির্জি নিয়ে পর্যালোচনা করুন এবং কিছু ফাইল সেভ করুন যেটা আপনার ভালো লাগে। যখন আপনি নিজের ইমেইল কন্টেন্ট এবং ডিজাইন তৈরী করবেন তখন সেগুলো নিজেকে অনুপ্রাণিত করতে ব্যবহার করুন।

সোশালমিডিয়া

আপনার ব্র্যান্ড ও ব্যবসার এর অডিয়েন্স নির্ধারন করতে স্যোশালমিডিয়া একটি দুর্দান্ত সুযোগ হিসেবে কাজ করে। আপনার সিংহভাগ কাস্টমার স্যোশালমিডিয়া উপভোগ করে এবং ইতিমধ্যে অনলাইনে সংযোগ করবার জন্য দুর্দান্ত ব্র্যান্ডগুলি খুঁজছেন। আপনার অডিয়েন্স নিয়ে গবেষণা করতে কিছু সময় নিন যাতে আপনি ভুল প্ল্যাটফর্মে আপনার সময় নষ্ট না করেন।

তারপরে,কিছু এনগেজমেন্টের কৌশল চেষ্টা করুনঃ

  • প্রাসঙ্গিক প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করুন।
  • শক্তিশালী সিটিএ করুন যেমন “ট্যাগ এ ফ্রেন্ড”।
  • ধারাবাহিকভাবে পোস্ট করুন।
  • কাস্টমার পোস্ট পর্যালোচনা করুন।
  • পোল বা কুইজের মতো ইন্টারেক্টিভ কন্টেন্ট তৈরি করুন।
  • হোস্ট করুন।
  • তাঁদের কমেন্ট ও চ্যাট এ রেসপন্স করুন।

যে কোন ধরনের কন্টেন্ট এ কাস্টমার ফিডব্যাক আপনাকে অনলাইন উপস্থিতির জন্য অনেক সাহায্য করবে। স্যোশালমিডিয়াতে ট্রেন্ড ও ট্যাক্টিস নিয়ে অনলাইনে এমন হাজারো তথ্য আছে যা আপনার মার্কেটিংয়ে সাহায্য করবে।

উপসংহার:

অনলাইনে  ব্যবসায়ের সেরা সাফল্যের জন্য কাস্টমার-সেন্ট্রিক স্ট্র্যাটিজি করা গুরুত্বপূর্ণ। কাস্টমার ব্যবসায়ীদের রেস্পন্সিভ ও এনগেজড হবার আশা করে থাকে। মনে রাখবেন, আপনার বার্তাগুলি বর্তমান বিশ্বের ইভেন্টগুলির প্রতি সেন্সিটিভ হতে পারে এবং সেগুলো অডিয়েন্সদের সাথে রিলিভেন্ট হতে পারে। এনগেজমেন্ট এর সর্বোত্তম উপায় হলো অডিয়েন্স স্ট্যাডি করা এবং তাদের প্রয়োজনগুলো বোঝা।

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

Hot selling T-shirt by Mohammad Raihan

Hot selling T-shirt (coffee).Gift for all members. https://drive.google.com/file/d/1aajUi1bjqmPFaCQJeH5InVzNuW0cIBHp/view?usp=sharing