CAMPAIGN BASICS

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

ক্যাম্পেইন বেসিকস

ক্রিয়েট এ ডিজাইন

১. বোল্ড ইজ অলওয়েজ বেটার

ডিজাইনস দেখতে ভালো লাগে যখন ডিজিটাল ফরমেট থাকে, তারপর যখন প্রোডাক্টের উপর ডিসপ্লেইড করা হয় তখন দেখতে অযৌক্তিক ও নিষ্প্রভ লাগে। থিন টেক্সট অথবা স্মল প্যাটার্ন যখন প্রিন্টে যাবে তখন স্পষ্ট তা ব্যর্থ হবে। গ্যারান্টিড ভিজিবিলিটির জন্য, বোল্ড ফ্রন্ট এবং প্যাটার্ন ইউজ হয়েছে কিনা সেটা সিউর করুন।

২. মিনিমাম কালার পারফর্ম বেস্ট

বেসিক কালার প্যালেটসহ ডিজাইন আপনার ডিজাইনগুলোর সাফল্যের উপর দুর্দান্ত প্রভাব ফেলতে পারে। আমাদের রিসার্চ দেখায় যে ৪৭% মার্চেন্ডাইজ যারা কিনা টপ ১০০ ক্যাম্পেইন এর মধ্যে তারা দুইটি কালার অথবা তার কম কালার নিয়ে ফিচারড করেছে।

গ্রেডিয়েন্টগুলি কখনই ভাল প্রিন্ট করে না এবং তাদেরকে সর্বদা এড়ানো উচিত। গ্রেডিয়েন্টের জায়গায়, প্রোপার প্রিন্ট কোয়ালিটি ইনসিউর করতে যাতে করে সেম কালার ফেড পাওয়া যায় তাই আমরা সাজেস্ট করবো হাফটোন ইউটিলাইজিং করতে। 

আপনি হাফটোন ইউজিং যখন করবেন (যা কিনা গ্রেডিয়েন্ট এফেক্ট ক্রিয়েট করে), স্টাইল কন্সিস্টেন বেস্ট রাখতে ডিজাইনে অবিচ্ছিন্ন টোন গ্রেডিয়েন্টের মিশ্রণ এড়িয়ে যাওয়া ভাল।

৩. ফিচার কন্ট্রাস্টিং কালারস

আপনার ডিজাইনের ভিউএবিলিটি কালার যা এফেক্ট করে থাকে সেটা হলো রঙ। আপনার ডিজাইনের মূল রঙ যখন মিডিয়াম অফ কালার এর সাথে রিসেম্বল করা হয় তখন, সেই ডিজাইন ইমিডিয়েটলি ভিউ করবার সময় ডিফিকাল্ট ফেস করতে হয়। ফর এক্সাম্পলঃ যখন আপনি ব্ল্যাক গার্মেন্টে প্রিন্ট করতে যাবেন সবসময় সিউর করুন যে আপনার ডিজাইনে ব্ল্যাক পোর্শন যেন না থাকে (সেই সমস্ত জায়গা ট্রান্সপারেন্ট করে রাখুন)। ইহা গার্মেন্টকে সুযোগ দিয়ে থাকে ব্ল্যাক এরিয়াকে রিপ্লেস করে একটি হায়ার কোয়ালিটি প্রিন্ট দিতে কারন পোশাকে গার্মেন্ট কালারে প্রিন্ট দেয়ার মানে হচ্ছে আনএট্রাক্টিভ কালার ভেরিয়েশন ক্রিয়েট করা। পটেনশিয়াল বায়ারসদের জন্য কন্ট্রাস্টিং কালার ইউজ করুন যাতে আপনার প্রোডাক্ট সত্যি “পপ” হয়।

৪.অ্যাড পার্সোনালাইজেশন টু প্রোডাক্টস

ফার্স্ট, গিয়ালঞ্চ ক্যাম্পেইন সেকশনের সাথে একটি নতুন প্রোডাক্ট ক্রিয়েট করুন। নেক্সট, আইটেমটি চুজ করুন, প্রাইজ সেট করুন, কালার পিক করুন, এবং আপনার আর্টওয়ার্কটি আপলোড করুন। তারপর, বাটনে ক্লিক করুন যেখানে বলা হয়েছে, “কনভার্ট টু এ পার্সোনালাইজ ক্যাম্পেইন”।

নেক্সট, “অ্যাড টেক্সট এরিয়া” বাটনটি ক্লিক করুন।

ড্রপডাউন লিস্ট থেকে আপনার ফন্ট চয়েজটি সিলেক্ট করুন, টেক্সট এর জন্য কালার চুজ করুন, এবং আপনার ডিফল্ট টেক্সটে এন্টার করুন। আপনার কাস্টমাররা যা দেখতে পাবে সেটাই হচ্ছে ডিফল্ট টেক্সট, আপনার নিজের পার্সোনালাইজ টেক্সট ইন্টার করে সেগুলো প্রোমোটিং করুন।

কিছু সাজেশন “আপনার নাম এখানে”,”এন্টার টেক্সট হেয়ার”, “পার্সোনালাইজ দ্যা টেক্সট”।

আপনার ডিজাইনের অপপ্রোপ্রিয়েট এরিয়া ফিট করতে টেক্সট বক্সটিকে পুনরায় আকার দিন এবং মুভ করুন।

নোটঃ যদি টেক্সট বক্স আপনার ডিজাইন কভার করে ফেলে, আপনার ডিজাইনের সেই অংশটি দেখা/প্রিন্ট হবে না।

আপনার পার্সোনালাইজ টেক্সটে যদি আপনি এডিশনাল লাইন অ্যাড করতে চান,  “অ্যাড টেক্সট এরিয়া” বাটনে আবার ক্লিক করুন। আপনি পার্সোনালাইজ টেক্সটে ৫টি লাইন অ্যাড করতে পারেন।

“ফিনিশ” ক্লিক এর পর পার্সোনালাইজেশন স্টেপটি সেভ হবে। “ক্যাম্পেইন” সেকশনে ব্যাক করুন, আপনি চাইলে পার্সোনালাইজেশন বক্সটি এডিট অথবা রিমুভ করতে পারেন।

তারপর, স্ক্রিনের টপ রাইট সাইডে “সেভ অ্যান্ড এক্সিট” উপর ক্লিক করুন।

প্রোডাক্ট পেউজের এর উপর, আপনার কাস্টমাররা “পার্সোনালাইজেশন ফন্ট” টেক্সট বক্সটি দেখতে পাবে। বক্সের ভিতর দেয়া যে টেক্সট থাকবে আইটেমগুলোতে সেগুলো প্রিন্ট হয়ে থাকবে।

প্রোডাক্ট কালার প্রাক্টিস সম্পর্কে আরো ইনফরমেশন জানতে, এখানে যান।   

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

Hot selling T-shirt by Mohammad Raihan

Hot selling T-shirt (coffee).Gift for all members. https://drive.google.com/file/d/1aajUi1bjqmPFaCQJeH5InVzNuW0cIBHp/view?usp=sharing