7 TIPS FOR GROWING YOUR BRAND ONLINE

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

আপনার ব্র্যান্ডকে অনলাইনে গ্রো করার জন্য ৭ টি টিপস

ব্র্যান্ড এ্যাওয়ারনেস আপনার অনলাইন বিজনেস গ্রো করার একটি প্রয়োজনীয় অংশ। আপনার কম্পেটিশন থেকে এটি আপনাকে আলাদা করে তুলে। যখন কাস্টমার আপনার কোম্পানিকে চিনে এবং আপনার কোম্পানি ভালো গুণসম্পন্ন প্রোডাক্ট ডেলিভার করবে তা বিশ্বাস করে তখন আপনি একটি লয়াল ফলোইং পেয়ে যাবেন যা আপনার বিজনেসকে অনলাইনে গড়ে তুলতে সাহায্য করবে।

১. আপনার ব্র্যান্ড ভয়েস স্টাব্লিশড করুন

অনলাইনে এ্যাওয়ারনেস বিল্ড করার চাবিকাঠি হলো আপনার ব্র্যান্ড এর ভয়েস। এইটা আপনার পার্সোনালিটি শো করে এবং আপনার টার্গেট অডিয়েন্সের কাছে আপনার টপ মেসেজগুলো তুলে ধরবে। কন্সিস্টেন্সি এবং ফ্রিকোয়েন্সি অনেক ইম্পরটেন্ট যখন আপনি আপনার কোম্পানি গড়ে তুলবেন। কাস্টমাররা আপনার মেসেজিং এ অভ্যস্ত হয়ে পরে এবং আপনার মূল্য বুঝতে পারে। এইটা এক ধরণের কমফোর্ট সেন্স ক্রিয়েট করে কারণ কাস্টমাররা জানে কি এক্সপেক্ট করতে হবে এবং আপনি সেই এক্সপিরিয়েন্স তাদের প্রোভাইড করবেন যা তারা খুঁজছেন। 

আপনার ব্র্যান্ড ভয়েস ক্রিয়েট করার সময় ক্রিয়েটিভ হন। অন্য ব্র্যান্ড এর কপি করার চেষ্টা করবেন না কারণ অনেক বেশি মিল থাকলে তা আপনার ব্র্যান্ডকে অন্য ব্র্যান্ড থেকে আলাদা করে তুলবে না। চঞ্চল বা তীক্ষ্ণ হন, যদি এটি আপনার ব্র্যান্ডকে অন্য ব্র্যাড থেকে আলাদা করে তুলতে পারে।

২. আপনার অডিয়েন্স সম্পর্কে জানুন

আপনার ব্র্যান্ড অনলাইনে গ্রো করার জন্য আপনার অডিয়েন্সকে বোঝা অনেক ইম্পরট্যান্ট। আপনার ব্র্যান্ড ভয়েস বা আইডেন্টিটি ডেভেলপ করার জন্য কি ধরণের মেসেজ  পাঠালে তা আপনাকে হেল্প করতে পারে এইটা, তা আপনাকে বুঝতে হেল্প করবে। যদি আপনার টার্গেট কাস্টমার মিলেনিয়াল হয় যে এনিমি দেখতে পছন্দ করেন, আপনার মার্কেটিং মেসেজ এমন হতে হবে যা কাস্টমারের প্রেফারেন্সের সাথে ম্যাচ করবে। 

আপনার নিশ জানার জন্য কিছু রিসার্চ করতে হবে।  আপনার কম্পেটিটররা কি করছেন তার খোঁজ রাখা আপনার ব্র্যান্ড এর ডেভেলপিং এর জন্য ভালো,  কিন্তু সব সময় তাই করুন যা আপনার ব্র্যান্ডকে অন্য ব্র্যান্ড এর মাঝে লক্ষ্য করতে বাদ্ধ্য করবে। কাস্টমাররা ঐসব ব্র্যান্ড পছন্দ করেন যারা জানেন তাদের কি পছন্দ এবং সেই সব প্রোডাক্ট প্রোভাইড করে যা তারা চান।

৩. সোশ্যাল মিডিয়াতে উপস্থিতি তৈরি করুন

ব্র্যান্ড এ্যাওয়ারনেস বিল্ড করার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া একটি পাওয়ারফুল টুল।  এইটার চাবিকাঠি হলো কনসিস্টেন্টলি এবং ফ্রিকুয়েন্টলি পোস্ট করা।  কাস্টমাররা যত বেশি আপনার ব্র্যান্ডকে অনলাইনে দেখবে ততো বেশি সম্ভবনা থাকে যে তারা পারচেজ করবে। গবেষণা থেকে দেখা গিয়েছে যে একটি নতুন ব্র্যান্ড এর সাথে এনগেজ হতে বা সেইটা থেকে পারচেজ করতে একজন নতুন কাস্টমারের অ্যাভারেজ এ ৭ টি টাচ লাগে। 

আপনাকে সব সোশ্যাল মিডিয় তে পোস্ট করার দরকার নেই তা মনে রাখবেন। আপনার অডিয়েন্সের ওপর রিসার্চ করুন এবং খুঁজে বের করুন কোন প্লাটফর্ম তারা বেশি ইউজ করেন। যদি আপনার টার্গেট অডিয়েন্স তাদের বেশির ভাগ সময় ইনস্টাগ্রাম এ ব্যয় করেন তাহলে  আপনার এফোর্ট সেইখানেই দিন। কোয়ালিটি সম্পন্ন এনগেজড অডিয়েন্স বিল্ড করা বেশি ইম্পরট্যান্ট বড় ফলোইং থেকে যারা কোনো দিন কনভার্ট হবে না।

৪. অ্যামেজিং কাস্টমার সার্ভিস প্রোভাইড করুন

যখন কোনো ব্র্যান্ড কাস্টমারদের খেয়াল রাখেন সেইটা কাস্টমাররা অনেক পছন্দ করেন। কাস্টমার আপনাকে পছন্দ করুক বা না করুক বা আপনার কোনো প্রোডাক্ট নিয়ে তাদের প্রব্লেম আছে যাই হোক না কেন কাস্টমারদের ভালো ভাবে ট্রিট করলে তা আপনাকে পরবর্তীতে ভালো সুযোগ এনে দিবে। কাস্টমাররা সোশ্যাল মিডিয়াতে কমপ্লেইন বা তাদের ফেভারিট প্রোডাক্ট এবং ব্র্যান্ড সম্পর্কে বলার জন্য বার বার ফিরে যান। পজিটিভ এক্সপেরিয়েন্স ক্রিয়েট করা অনেক ইম্পরট্যান্ট এবং এইটা কাস্টমারদের বার বার ফিরে আস্তে বাধ্য করে।

৫. ইনফ্লুয়েন্সারদের সাথে পার্টনারশিপ করা

সোশ্যাল প্লাটফর্ম এর মেনশন থেকে আপনার ব্র্যান্ড এর ফ্যান বের করুন। যখন আপনি তাদের আইডেন্টিফাই করতে পারবেন , তাদের কাছে পৌঁছে যান এবং তাদের সাথে পার্টনারশীপ করুন ! এইটা আপনার ব্র্যান্ড এবং ইনফ্লুয়েন্সার উভয়কেই  একটি বিস্তৃত অডিয়েন্স এবং একটি নতুন এক্সপোজার দেয়। সময়ের সাথে, ব্র্যান্ড এ্যাওয়ারনেস এবং সোশ্যাল প্রুফ তৈরির জন্য এই সম্পর্কগুলি অনেক হেল্প করবে।

৬. কোয়ালিটি কনটেন্ট ক্রিয়েট করা

যখন আপনি অনলাইন কনটেন্ট ক্রিয়েট করা শুরু করবেন তখন আপনি আপনার অডিয়েন্সদের  জন্য মানসম্পন্ন সামগ্রী সরবরাহ করছেন তা নিশ্চিত করুন। আপনার সোশ্যাল শেয়ারের ভ্যালু প্রোভাইড করুন, এইটা এই সিজন এর টিপ হতে পারে বা আপনার প্রোডাক্ট এর সাথে রিলেভেন্ট না এমন কনটেন্টও হতে পারে। কাস্টমাররা সারাদিন সেল পিচগুলি পড়তে চান না, তাই অন্যকোনো নতুন এবং ক্রিয়েটিভ উপায় ভ্যালু প্রোভাইড করার জন্য এবং আপনার প্রোডাক্ট এর সাথে রিলেটেড না এমন ইন্টেরেষ্টিং কনটেন্ট খুঁজে বের করুন। এটি আস্থা বৃদ্ধি করে এবং গ্রাহকদের ফিরিয়ে আনে।

৭. ইমেইল লিস্ট বিল্ড করুন

বর্তমান গ্রাহকদের ফেরত পাবার অন্যতম সেরা উপায় ইমেল। আপনার স্টোরের নতুন প্রোডাক্ট বা যে ডিজাইন  গুলো এভেইল্যাবল তা আপনার কাস্টমারদের জানানোর সব থেকে ভাল উপায় হলো আপনার ইমেইল লিস্ট।  নতুন কাস্টমার পাওয়া থেকে পুরোনো কাস্টমারদের ফেরত পাওয়া এবং তাদের পারচেজ করানো সহজ।  আপনার অডিয়েন্সদের কাছে কন্সিস্টেন্টলি পৌঁছে যান এবং তাদের শুধু সেল না এর থেকে বেশি ইনফরমেশন প্রোভাইড করুন। আপনি আপকামিং সেল বা একটি এক্সসাইটিং নতুন ডিজাইন  যা এই সিজনের জন্য পারফেক্ট সেইটা জানাতে পারেন। 

কনক্লুশন

ব্র্যান্ড এ্যাওয়ারনেস বিল্ড করার সব থেকে বড় চাবিকাঠি হলো কন্সিস্টেন্সি। আপনি যত বেশি অনলাইন এ থাকবেন তত বেশি সম্ভাবনা থাকে যেভাবে আপনি চান সেভাবে আপনার বিজনেস বিল্ড করার । ব্র্যান্ড এ্যাওয়ারনেস ট্রাস্ট ফ্যাক্টর বৃদ্ধি করে যা আল্টিমেটলি আপনার রেভিনিউ বৃদ্ধি করে। যদি আপনার ব্র্যান্ড স্ট্রাগল করে চলছে তাহলে ওই এরিয়াগুলো কনসিডার করুন যেখানে আপনি ইম্প্রোভ করতে পারবেন এবং আপনার মার্কেটিং এফোর্ট এ কন্সিস্টেন্ট হওয়ার জন্য আরো বেশি আইডিয়া খুঁজে বের করুন। 

শুরু করার জন্য রেডি ? কয়েক মিনিটের মধ্যে গিয়ারলঞ্চকে আপনার আইডিয়াগুলো আপ এবং সেল করতে দিন!

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

HIRE A DESIGNER

হায়ার এ ডিজাইনার আপনি ডিজাইনার’স ব্লকের কোনও সমস্যায় ভুগছেন বা কোনও নির্দিষ্ট কাজের সাথে ওভারহোয়েলমেড  ফিল করছেন, ভুলে যাবেন না যে আপনি সারা বিশ্বজুড়ে ডিজাইনারদের

SUPERCHARGE YOUR SHOPIFY STORE

আপনার শপিফাই স্টোরটিকে সুপারচার্জ করুন গিয়ারলঞ্চ অ্যাপ্ এড করুন এবং একটি ই-কমার্স বিজনেস পরিচালনার জন্য আপনার প্রয়োজনীয় সব কিছুর অ্যাক্সেস দিন  — হাই কোয়ালিটি পিওডি