5 EASY TIPS SUCCESSFUL DESIGNS GEARLAUNCH

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

গিয়ারলঞ্চ ডিজাইনের জন্য ৫ টি ইজি সাক্সসেসফুল টিপস

কখনো কখনো কম্পিউটারের স্ক্রিনে ডিজাইন করা টি-শার্ট বা অন্য প্রোডাক্ট সেইম লাগে না। আনহ্যাপি কাস্টমাররা ই সবচেয়ে বেশি চিন্তার কারন আপনার ডিজাইনটি তারা যে ভাবে দেখে ছিলো সে ভাবে তৈরি করা হয় না ।

আপনার গিয়ারলঞ্চ স্টোরটি সফলভাবে  ডিজাইন করার জন্য আমরা ৫ টি ইজি স্টেপ রেখেছি

১. প্রিন্টের জন্য অ্যাডোব ইলাস্ট্রেটর অ্যান্ড ফটোশপ সেটিংস জানুন

আমরা CMYK ডিজাইনিং করার এবং sRGB প্রোফাইলে আপনার ডিজাইন গুলো সেইভ করার রিকমেন্ডেড করছি। এটি আপনার ডিজাইনটি প্রিন্ট করার জন্য বেস্ট কালার গুলো ক্রিয়েট করতে এনসিওর করবে। ডিফারেন্সটি কম্পিউটারে লক্ষ্য করা যায় না তবে এটি আমাদের বেস্ট প্রিন্টার এবং আপনার প্রিন্টটি যতটা পসিভল শার্প দেখাবে।

সব প্রিন্টার ই CMYK প্রিন্ট করতে পারে কিন্তু ফুল RGB স্পেকটার্ম নয়। CMYK অ্যান্ড RGB এর মধ্যে আরো ডিফারেন্স জানতে কালার বেস্ট প্রাকটিসে আমাদের ইনফরমেশন গুলো প্লিজ চেক করুন


আমরা আমাদের প্ল্যাটফর্মে হাজার হাজার ক্যাম্পেইন এনালাইজড এবং মোস্ট পপুলার ডিজাইন কালার গেদার করেছি। যদি আপনার ডিজাইনে নিচের একটি রঙ থাকে তাহলে বেস্ট কালার প্রিন্ট লিস্টে হেক্স কোডটি ইউজ করুন

২. আপলোড আর্ট ওয়ার্ক ইন ডট পি এন জি ফরমেট

গিয়ারলঞ্চ এ সব সময় ৩০০ ডি পি আই এর ডট PNG ফরমেট আপলোড করুন। ক্লিন এবং প্রফেশনাল প্রিন্ট ক্রিয়েট করতে অ্যান্টি-এলায়জিং টার্ন অফ করতে ভুলবেন না। ইমেজটি স্ট্রেচিং হওয়ার কারণে পিক্সিলেশন প্রব্লেম এভেয়ড করার জন্য কারেক্ট সাইজ ডিজাইন প্লেসমেন্টে মকআপ ইউজ করা ইম্পরট্যান্ট। PNG কোন ভেক্টর ইমেজ নয় এবং ডিসাইয়ার স্পেসে পিক্সেলের কভারটি শো হতে পারে।

গিয়ারলঞ্চের জন্য মিনিমাম আর্ট রিকয়ারমেন্ট প্রয়োজন 1600px থেকে 9400px ওয়াইড।

৩. আপনার ডিজাইনের কালার কনসিস্টেন্ট কিনা তা মেক সিওর করুন

আপনি যদি নিজের ডিজাইনটি গিয়ারলঞ্চ এ আপলোড করেন এবং সিস্টেমটি যেহেতু খালি চোখে বেশি কালার ডিটেক্ট করে , সব কালারের সাথে কনসিস্টেন্ট রেখে ডিজাইনটি স্ক্যান করবেন।

সম্ভবত পার্টিকুলার  ডিজাইনের একটি  ছায়া ডিজাইনে প্রেজেন্ট আছে। ফর এক্সাম্পলঃ রয়েল ব্লু অ্যান্ড ডার্ক পারপল বিপরীত ডিজাইনের দেখতে একই রকম হতে পারে, তবে যখন তারা একে অপরের পাশে থাকে তখন সেগুলো ক্লিয়ারলি ডিফারেন্ট । আপনি যদি চান আপনার ডিজাইনটি রয়েল ব্লু চেক সহ প্রিন্ট হয় তবে তা নিশ্চিত হয়ে নিন যে এটি সব ডিজাইনের জন্য সেইম।

৪. আপনার ডিজাইন টি সেন্টারে আছে এটি মেক সিওর করুন

আপনার ডিজাইন গুলো প্রোডাক্ট টি সেন্টারড করে রাখার ট্রাই করুন এবং এইজড এভয়েড করে চলুন। আপনি যদি ক্যাম্পেইন এর সময় মাল্টিপল প্রোডাক্ট ইউজ করেন তবে অনিচ্ছাকৃত ক্রপিং প্রতিরোধ করতে আপনার ডিজাইনটি সাইজ দেওয়ার ট্রাই করুন।

আপনি ক্লিন ডিজাইন ক্রিয়েট করুন এবং সবধরণের ডিফেক্টস প্রিভেন্ট করতে আপনার ডিজাইন থাকা সমস্ত অযাচিত জিনিস থেকে মুক্ত থাকুন। ডিজাইনে একটি শেপ বা লাইন রেখে দিলে এর ইন্ট্রিগ্রিটি রুইন হতে পারে।

৫. ইউজ এ ট্রান্সপারেন্ট ব্যাকগ্রাউন্ড

আপনার ডিজাইনে ১০০% ট্রান্সপারেন্ট ব্যাকগ্রাউন্ড ইউজ করা বেস্ট । আপনি যে কালার গুলো প্রিন্ট করতে চান তার জন্য স্বচ্ছতা ইউজ করবেন না কারন এটি প্রিন্ট কে নোংরা করে । পরিবর্তে একটি পপুলার প্রিন্টিং মেথড ইউজ করুন যা কালারের সাফল্যের এর সাথে এড্রেসড করে যা হাফটোন প্রসেস নামে পরিচিত। হাফটোন ইউজ করার সময় (গ্রেডিয়েন্ট ইফেক্ট ক্রিয়েট করে), কনসিস্টেন্ট স্ট্যাইল এবং এভয়েড মিক্সিং ধারাবাহিকতা বজায় রেখে গ্রেডিয়েন্ট ডিজাইন টন করা বেস্ট।

আপনার ডিজাইনে ভিউবিলিটি এফেক্ট করার আরো একটি ফ্যাক্টর হলো কালার। আপনার ডিজাইনের মেইন কালার গুলো যখন একটি কালার এর সাথে অন্য একটি কালার ম্যাচ হয় তখন আপনার ডিজাইন ইমিডিয়েটলি দেখতে ডিফিক্যাল্ট লাগে। এটি এভয়েড করতে আপনার সম্ভাব্য ক্রেতাদের জন্য “পপ” প্রোডাক্ট ইউজ করা পটেনশিয়াল ।

আপনার ডিজাইন গুলো ক্রিয়েট ও ফর্মেটিং করা সম্পর্কে আরও জানুন,

এই গাইডলাইন গুলো ফলো করলে আপনি কাস্টমারদের চুজ অনুযায়ী ডিজাইন করতে পারবেন। আপনার কাছে যদি স্টোর না থাকে আমরা আপনাকে হেল্প করতে পারি, আজই গিয়ারলঞ্চের সাথে শুরু করুন!

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

Monthly Live about Facebook Marketing

Here we covered how to do Facebook marketing in effective ways which will drive more traffics and how you can raise the possibility to increase

1000 T-shirt Mockup

এখানে আপনারা পাচ্ছেন ১০০০ টিশার্ট-এর ফ্রি মকআপ! আপনার পছন্দ অনুযায়ী যেকোনো ডিজাইন নিয়ে কাজ করতে পারবেন একদম ফ্রি-তে। তাই দেরি না করে ডাউনলোড করে নিন