14 SOCIAL MEDIA STRATEGIES TO GROW YOUR ONLINE STORE

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

আপনার অনলাইন স্টোর বৃদ্ধির জন্য ১৪টি  সোশ্যাল মিডিয়া স্ট্র্যাটিজি

সোশ্যাল মিডিয়া গত দুই দশক ধরে একটি শক্তিশালী মার্কেটিং টুল হয়ে উঠেছে এবং এটি ই কমার্স মার্কেটিং সাফল্যের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আপনার কর্ম সম্পাদন শেষ এবং আপনার স্টোর লঞ্চ করুন, এটাই সময় মার্কেটিং নিয়ে ভাবার এবং কীভাবে আপনি আপনার অসাধারণ ব্র্যান্ডটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানাবেন।

সঠিকভাবে করা সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার আপনা সেলস বৃদ্ধি করতে, আপনার ব্র্যান্ড সম্পর্কে এওয়ারনেস তৈরি করতে এবং আপনার কাস্টমার আপনার লেটেস্ট  ডিজাইন, সেলস  এবং আরও অনেক কিছুর আপডেট দিতে সহায়তা করবে। স্মার্ট ইনসাইড  সার্ভে অনুসারে, অর্ধেকেরও বেশি কোম্পানিগুলো তাদের বিজনেস  এর জন্য সোশ্যাল  মিডিয়া মার্কেটিং ব্যবহার করে তাদের  রেভিনিউ  বুস্ট করে।

তবে মনে রাখবেন, আপনার সোশ্যাল প্রেজেন্স তৈরি করতে সময় লাগে।  কোয়ালিটি অডিয়েন্সে  তৈরি যাতে করে কাস্টমার লয়াল হয়ে উঠবে। এবং এটি রাতারাতি সম্ভব না । আপনার অনলাইন স্টোরটি বৃদ্ধি করা এবং আপনি যে সাফল্যের স্বপ্ন দেখেছেন তার জন্য আমাদের ১৪ টি কৌশল রয়েছে!

অর্গানাইজড হন

সোশ্যাল মিডিয়া তে  বেশির ভাগ অর্গানাইজেশন গুলো যে ভুল  করে তা হলো অর্গানিজেশনেই অভাব। আপনি প্রায় সময়ই অসামঞ্জস্য বা ভিক্তিহীন কনটেন্ট পোস্ট করছেন। এভাবে আপনি সহজেই হারিয়ে যেতে পারেন। চিন্তা করবেন না! আপনাকে সঠিক ডাইরেকশন দেখানোর জন্য অনলাইনে প্রচুর রিসোর্স রয়েছে।


গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হলো আপনাকে মনে রাখতে হবে আপনার একটি পরিকল্পনা দরকার। আপনি একটি কাগজে লিখে রাখতে পারেন, স্প্রেডশিট ব্যবহার করতে পারেন বা সোশ্যাল মিডিয়া ক্যালেন্ডার টেম্পলেট গুলো ডাউনলোড করতে পারেন। আপনি যা করেন না কেন, বসে পরিকল্পনা করুন।

পোস্ট ফ্রীকোয়েন্টলি

আপনার নিজের পরিকল্পনাটি একবার সম্পূর্ণ  হয়ে গেলে, আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে ফ্রিকোয়েন্টলি পোস্ট করা গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিদিন পোস্ট করা জরুরি নয়, তবে আপনি যত বেশি পোস্ট করবেন, তত ফ্রিকোয়েন্টলি আপনার অডিয়েন্স বৃদ্ধি পাবে। মনে রাখবেন, কোয়ান্টিটি চেয়ে কোয়ালিটি বেশি গুরুত্বপূর্ণ। পোস্টিং কনটেন্ট তখনই বেশি দ্রুত কাজ করবে যখন আপনি কম্পেলিং আর ক্রিয়েটিভ কনটেন্ট পোস্টি করবেন।

সঠিক প্ল্যাটফর্ম এ  সঠিক কনটেন্ট পোস্ট করুন

প্রতিটি প্ল্যাটফর্ম বিভিন্ন ধরণের কনটেন্ট সমর্থন করে, তাই আপনার সকল মিডিয়া চ্যানেল গুলি সম্পর্কে জানা এবং বোঝা গুরুত্বপূর্ণ। উদাহরণস্বরূপ, ইনস্টাগ্রাম এবং পিন্টারেস্ট স্টাননিং দৃশ্যগুলিতে ফোকাস করে। রিসেন্টলি, ইনস্টাগ্রাম আইজিটিভি এবং ভিডিও  রিলিজ এর দিকে ফোকাস করছে। ফেসবুক প্রাপ্তবয়স্ক অডিয়েন্সদের জন্য দুর্দান্ত যারা সেখানে তাদের প্রিয় ব্র্যান্ড গুলির দিকে নজর রাখে। আপনার কি ধরণের কনটেন্ট ক্রিয়েট প্রয়োজন তা জানতে আপনি কি কোনোদিন রিসার্চ করেছেন?

এক বা একের অধিক সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এ  ফোকাস করুন

ছোট থেকে শুরু করুন !! প্রতিটি সোশ্যাল মিডিয়া সাইটে আপনার ব্র্যান্ডের দরকার নেই। আপনার যদি একটি প্ল্যাটফর্ম থাকে আর আপনি সেই প্লাটফর্ম এ  আরও বেশি সময় ব্যয় করতে চান, তবে সেখানে থেকে স্টার্ট করুন।  আপনার আরও জানতে হবে এটি কীভাবে কাজ করে এন্ড  আপনার অনলাইন স্টোর কে প্রচার করতে আপনি কীভাবে এটি ব্যবহার করতে পারেন। আপনি বিজনেস বাড়ার সাথে সাথে আপনি অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া সাইট গুলো টেস্ট করে দেখতে পারেন।

এনালিটিক্স করে আপনার অডিয়েন্স কে জানুন

ভয় পাবেন না! আপনার এডভান্টেজ এর জন্য আপনাকে এক্সপার্ট মার্কেটার হতে হবেনা। আপনি সিম্পলি তিনটি জিনিস সন্ধান করুন ।

১) আপনার মোস্ট এনগেজ কাস্টমারদের  ডেমোগ্রাফিক ( তারা করা? )

২) কোন  (সময় এবং দিন) তারা বেশি এনগেজ ছিল

৩) তারা কি কন্টেন্ট বেশি  পছন্দ করে

আপনি বিজনেস বৃদ্ধির সাথে আপনি আরও ইন-ডিপথ  ইনফরমেশন পেতে পারেন, কিন্তু আপনার অডিয়েন্সদের  ভালোভাবে জানতে এই বিশেষ টুল আপনাকে সহায়তা করবে।

একটু এডভার্টাইজ করুন

মুখোমুখি হওয়া যাক, আপনি যখন প্রথম স্টার্ট  করবেন তখন আপনার টার্গেট অডিয়েন্সদের কাছে পৌঁছানোর জন্য আপনার হয়তো একটি বা দুটি ফেসবুক এডভার্টাইজমেন্ট ক্রিয়েট  করা প্রয়োজন হবে। বিশাল বাজেট দিয়ে আপনার স্টার্ট করার প্রয়োজন নেই। টার্গেট অডিয়েন্স  ক্রিয়েটিং এন্ড ডিজানিং এন্ড আপনার এডভার্টাইসমেন্ট ক্রিয়েটিং এর উপর ফোকাস করুন। তারপর টেস্ট করুন, শিখুন এন্ড আবার চেষ্টা করুন।

আপনার মেসেজিং টেস্ট  করুন

আপনি ফেসবুকে এডভার্টাইজমেন্ট টেস্ট করছেন বা ইনস্টাগ্রামে এনগেজমেন্ট ক্রিয়েট করছেন সেক্ষেত্রে  আপনার ম্যাসেজ গুলো একবার দেখে নিতে অলওয়েজ ইচ্ছা  প্রকাশ করুন। এটি যদি আপনাকে রেসাল্ট না দেয় তাহলে, আপনি যা বলতে যাচ্ছেন তার আরও ফাইন টিউন করতে হবে। আপনার পছন্দসই অন্যান্য অ্যাকাউন্টগুলি এবং কী ধরনের ম্যাসেজ তারা ব্যবহার করছে তা দেখুন। কপি করবেন না, তবে ইনস্পিরেশন নিন এবং আপনার নিজস্ব ব্যক্ত ধারণা এন্ড কনটেন্ট তৈরি করুন যা আপনার অডিয়েন্স এর সাথে রেসোনেটেড হয়। ইনস্পিরেশন এর জন্য আমাদের পছন্দের কয়েকটি টি-শার্ট ব্র্যান্ড ইনস্টাগ্রামে দেখুন!

ট্রেন্ডিং বিষয়গুলির সাথে একত্রিত হন

ট্রেন্ডস আসে এবং যায়, তবে আপনার বিজনেজ  এর  পক্ষে আটটেনশন দেয়া এবং পপুলার ট্রেন্ডস গুলির সাথে আপনার মেসেজ  বা ডিজাইনগুলি একত্রিত করা ইম্পর্টেন্ট। এটি হলিডে, বছরের একটি সময়, একটি নতুন ফ্যাশন বা কালার প্যালেট হতে পারে। গুগল ট্রেন্ডস এর উপর রিসার্চ করার জন্য কিছুটা সময় ব্যয় করুন বা আপনার ম্যাসেজ এ ব্যবহার করতে পারেন এমন পসিবল টপিক গুলি লক্ষ্য করার জন্য টুইটার এ হ্যাং আউট করুন।

একটি দুর্দান্ত উদাহরণ হল রিসেন্ট স্ট্রোম এরিয়া ৫১ ট্রেন্ড । লোকাল  বিসনেস , ডিজাইনার এবং ই কমার্স স্টোর সহ অনেকই এই ট্রেন্ড নোটিশ  করে এবং স্পেসিফিক্যালি এই মজার ট্রেন্ডটির ফলোয়ারদের জন্য হ্যাশট্যাগ এবং ডিজাইনের সাহায্যে তড়িঘড়ি করে কাজ করে।

ইন্টারেক্টিভ কন্টেন্ট ক্রিয়েট করুন

মানুষ ব্র্যান্ডের সাথে ইন্টারেক্ট করতে পছন্দ করে। আপনি আপনার অডিয়েন্স এর জন্য কুইজ বা পোল ক্রিয়েট করার চেষ্টা করতে পারেন। এটি ফিডব্যাক পাওয়াও একটি মজার উপায়। আপনি সার্ভেএনিপ্লেস এর  মতো কোনও অনলাইন টুল দিয়ে আপনার অডিয়েন্সদের জন্য খুব সহজেই একটি মজার কুইজ তৈরি করতে পারেন। ইনস্পিরেশন  জন্য হলিডে ক্যালেন্ডার ইউজ করুন এবং আপনার ব্র্যান্ডের জন্য উপযুক্ত হলে মতামত জিজ্ঞাসা করুন।


আপনি যাই করুন না কেন, নিশ্চিত করুন আপনার অডিয়েন্স যেন আপনার সাথে এনগেজ থাকে !

সঠিক হ্যাশট্যাগ ইউজ করুন

টুইটার এবং ইনস্টাগ্রামে সঠিক হ্যাশট্যাগ ইউজ করলে তা  আপনার অডিয়েন্স বাড়াতে সহায়তা করতে পারে। আপনার ব্র্যান্ডটির জন্য মিনিংফুল  হ্যাশট্যাগগুলি খুঁজতে আপনাকে কিছু রিসার্চ করতে হতে পারে। আপনার ব্র্যান্ডের জন্য সেরাগুলি সম্পর্কে রিসার্চ করার জন্য এখানে কয়েকটি ধারণা দেওয়া হয়েছে।

  • হাই ডেন্সিটি আর লো ডেন্সিটি এর হ্যাশট্যাগ গুলির মিক্স ইউজ  করুন
  • হ্যাশট্যাগ গ্রুপগুলো রিসার্চ করুন
  •  কমিউনিটি  হ্যাশট্যাগ গুলি ইউজ করুন
  •  ব্র্যান্ডের হ্যাশট্যাগ গুলো খুজে বের করুন
  • অডিয়েন্স ডেসক্রিপটিভ হ্যাশট্যাগগুলি ইউজ করুন
  •  অডিয়েন্স বা নিশ এর হ্যাশট্যাগগুলি কনসিডার করুন

মনে রাখবেন, একবার আপনি রিসার্চ করলে, প্রতিবার একই হ্যাশট্যাগগুলি ইউজ করবেন না । আপনার অডিয়েন্স  বিভিন্ন হ্যাশট্যাগ ইউজ করে এবং আপনারও উচিত তা করা! ইনস্টাগ্রামে আরও মার্কেটিং তথ্য জানার জন্য, আমাদের ই বুকটি ডাউনলোড করুন এবং গ্রো করতে স্টার্ট  করুন!

ভিডিও ইউজ করে দেখুন

ভিডিওটি ইনস্টাগ্রাম এবং ফেসবুক এ  পপুলার। আপনার স্টোরি গুলিতে ভিডিও পোস্ট করার ট্রাই করুন বা একটি নতুন প্রোডাক্ট বা ডিজাইনেই ইভেন্ট এনাউন্স  করতে “লাইভ ” করুন। অনেক ব্র্যান্ড তাদের রিকোগনিশন ক্রিয়েট করতে ভিডিও ইউজ করেছে এমন অনেক ক্রিয়েটিভ উপায়  রয়েছে। আপনি যত বেশি সময় আপনার টার্গেট অডিয়েন্স  এর সামনে আসতে পারেন, তত বেশি সম্ভব তারা আপনার প্রোডাক্ট গুলো রিকোগনাইজ  করতে পারে, আপনার ব্র্যান্ডকে ট্রাস্ট করতে পারে এবং পারচেজ  করতে পারে।

আপনার প্রোডাক্ট গুলি শেয়ার করা ইজি  করুন

নিশ্চিত করুন আপনার সোশ্যাল শেয়ার বাটন গুলি ফ্রন্ট এবং সেন্টারে রয়েছে ! আপনার ওয়েবসাইটে বা এমনকি চেকআউট প্রোসেস জুড়ে সোশ্যাল আইকনগুলি কাস্টমারদের  পক্ষে ক্লিক এবং শেয়ার করে নেওয়া সহজ করে। বিভিন্ন ওয়েবসাইট প্লাগইন রয়েছে যা “ক্লিক টু ট্যুইট” এলাও করে । আপনি যা করেন না কেন, আপনার অডিয়েন্সদের তাদের প্রিয় প্রোডাক্টগুলি তাদের ফ্রেন্ডস এবং ফ্যামিলির সাথে শেয়ার করতে এনকারেজ করুন।

একটি ইনফ্লুয়েন্স ক্যাম্পেইন পরিচালনা করুন

মিডিয়া মার্কেটিং এর পাশাপাশি ইনফ্লুয়েন্স মার্কেটিং দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। অ্যাকাউন্ট রিভিউ করে  বা কোনও পপুলার পার্সন প্রোডাক্ট রিভিউ করার পরে মানুষের কেনার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। স্পেসিফিক অ্যাকাউন্ট গুলো তে রিচ করুন এবং তাদের কনসিডার করুন স্পনসর প্রোডাক্ট  গুলো শেয়ার করতে। কেউ কেউ ফ্রি প্রোডাক্ট এর রিভিউ করে আবার কেউ প্রোডাক্ট কিনে রিভিউ করে। নিশ্চিত করুন আপনার ইনফ্লুয়েন্সার  আপনার ব্র্যান্ড এবং আপনার ব্র্যান্ডের ভ্যালু সঠিক ভাবে রিপ্রেজেন্ট করছে কিনা ।

ইনস্টাগ্রামে শপিং করার সুযোগ দিন

ইকমার্স ব্র্যান্ডের জন্য ইনস্টাগ্রাম অন্যতম প্রধান। নিশ্চিত করুন আপনার অ্যাকাউন্ট একটি বিজনেস অ্যাকাউন্ট, তারপর শপিংয়ের জন্য এপ্রূুভড করুন। আপনার ইনস্টাগ্রাম আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টের সাথে কানেক্ট এবং ফেসবুক ক্যাটালগ সেটআপ করা প্রয়োজন। প্রথমে, এটি কয়েক মিনিট সময় নেয় তবে কাস্টমার এর জন্য সরাসরি তাদের ইনস্টাগ্রাম ফিড থেকে শপ করা দ্রুত এবং সহজ করে তোলে!

এভাবেই কোনও ব্র্যান্ড তাদের প্রোডাক্ট সেল করতে ইনস্টাগ্রাম ইউজ  করে।

স্টেপ  ১:  প্রোডাক্ট এর একটি ইমেজ পোস্ট করার সাথে সাথে আপনার বিজনেস শপিং এনাবেল করুন। 

স্টেপ  ২: পটেনশিয়াল কাস্টমারদের প্রাইজ ডিসপ্লে করতে আইটেমটির উপরে ট্যাপ করেন।

স্টেপ  ৩: কাস্টমার আরও ইনফরমেশন জানার জন্য ইমেজ এ  ট্যাপ করে বা স্থির হয়ে থাকেন।

স্টেপ  ৪: কাস্টমার পারচেজ করে!

আপনার ক্রিয়েটিভ ক্যাপ অন করুন!

বেস্ট সোশ্যাল মিডিয়া ক্যাম্পেইন এবং ফিড ক্রিয়েটিভিটি এর প্রচেষ্টা করুন । এমন একটি ব্র্যান্ড হওয়া ইম্পরট্যান্ট যা ট্রাস্ট  এবং রিলেশনশিপ বিল্ড আপ করে এন্ড আপনার কাস্টমারদের এনগেজ করে !

এখন, ব্রেইনস্টর্মিং করুন এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় উন্মন্থন করুন !

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

SUPERCHARGE YOUR SHOPIFY STORE

আপনার শপিফাই স্টোরটিকে সুপারচার্জ করুন গিয়ারলঞ্চ অ্যাপ্ এড করুন এবং একটি ই-কমার্স বিজনেস পরিচালনার জন্য আপনার প্রয়োজনীয় সব কিছুর অ্যাক্সেস দিন  — হাই কোয়ালিটি পিওডি

Baby Onesie

বেবি ওয়ানজি বেস কস্ট     প্রোডাক্ট ইনফরমেশন      আর্ট ওয়ার্ক এন্ড মকআপ     সাইজ গাইড  বেস কস্ট Tier Monthly Unit sale Price