10 TIPS FOR NAMING YOUR BLOG OR BUSINESS

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

আপনার ব্লগ বা বিজনেস নেমিং এর জন্য ১০ টিপস

যখন কোনো বিজনেস বা ব্লগ শুরু করা হয় তখন অন্ট্রোপ্রেনারদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে সিদ্ধান্ত নিতে হয় তা হচ্ছে তাদের নিউ কোম্পানি এর জন্য নাম পছন্দ করা। আপনার বিজনেস নেমটি  আপনার চূড়ান্ত সাফল্য বা ব্যর্থতার উপর উল্লেখযোগ্য প্রভাব ফেলতে পারে। আপনার বিজনেস নেমটি   আপনাকে আপনার অডিয়েন্স এর সাথে কানেক্ট হতে সাহায্য করবে এবং এমন একটি ইমেজ ক্রিয়েট করুন যেটি আপনাকে মার্কেটপ্লেস এ স্টাব্লিশড হতে সাহায্য করবে। 

আপনার ব্লগ বা বিজনেস নেমিং অনেক গুরুত্বপূণ, তাই গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে বিবেচনা করার জন্য ১০টি টিপস একসাথে রেখেছি।

১. আপনি আপনার কোম্পানি নেম এর মাধ্যমে কি বহন করতে চান তা ভেবে দেখুন। 

২. ব্রেইনস্টর্ম আইডিয়াস। 

৩. এটি শর্ট,সিম্পল, এবং মনে রাখতে বা লিখতে ইজি হয় এমন নাম রাখতে হবে। 

৪. ডোমেইন নেম গুলোর জন্য পুরো ইন্টারনেট সার্চ করুন। 

৫.খুব সংকীর্ণ বা আক্ষরিক নাম গুলো এভোইড করুন। 

৬.  সে ইট আউট লাউড।  

৭. ট্রেন্ডই নামগুলির এভয়েড করুন। 

৮. খুব বেশি জেনেরিক হবেন না। 

৯. জিওগ্রাফিক নেইমগুলির সাথে কেয়ারফুল থাকতে হবে। 

১০. নামের উপর ফিডব্যাক নিন।

আপনি আপনার কোম্পানি নেম এর মাধ্যমে কি বহন করতে চান তা ভেবে দেখুন

কোম্পানি নেইম আপনার বিজনেস  সম্পর্কে অনেক কিছু বলে যেমন আপনার বিজনেস টাইপ কি এবং আপনার বিজনেস কে সার্ভ করে ইত্যাদি। একটি সিরিয়াস বিজনেস বা ভাইস ভার্সা এর জন্য আপনি কোনো ক্রিয়েটিভ নেইম পছন্দ করতে চাইবেন না। একটি নেইম পছন্দ করার আগে আপনার কোম্পানির ভ্যালু  বিবেচনা করতে হবে এবং  আপনার অডিয়েন্স এর কাছে আপনার কোম্পানি নেইম কি বহন করছে তা বুঝাতে হবে। 

মনে রাখবেন, এটি এমন একটি নাম যা আপনার বিজনেস কার্ড, ইমেল, ওয়েবসাইট, সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এবং আপনি যে কোনও প্রোডাক্ট প্রমোশন তৈরি করবেন সব জায়গায় থাকবে। আপনি এমন একটি নেইম চাইবেন যেটি আপনাকে প্রাউড করবে এবং যা শুধুমাত্র আপনাকেই  না আপনার বিজনেস কে রিপ্রেসেন্ট করবে।  

যখন আপনার ব্লগ নেমিং এর  কথা আসে তখন আপনার এমন কিছু পছন্দ  করা উচিত যা আপনার বিজনেস এর বাকী অংশকে রিফ্লেক্ট করে।

ব্রেইনস্টর্ম আইডিয়াস

একবার আপনি নিজের কোম্পানি নেইম এর মাধ্যমে কি প্রকাশ করতে চান সে সম্পর্কে আপনার ভাল ধারণা হয়ে গেলে, এখন সময় ব্রেইনস্টর্ম আইডিয়া জেনারেট করুন। একটি ওয়ার্ড লিস্ট তৈরী করুন যা আপনার প্রোডাক্ট এবং ইন্ডাস্ট্রি কে ডেস্ক্রাইভ করবে। কোন ওয়ার্ড অথবা ফ্রেইজ আপনার কম্পেটিটর কে ডেস্ক্রাইভ করবে? কোন ওয়ার্ডস আপনার ফিলিং কে এভোক করে। এমন ওয়ার্ড লিস্ট তৈরী করুন যা আপনার  ফিচারস কে হাইলাইট করে অথবা আপনি কিভাবে আপনার নিশ কম্পেটিটর থেকে নিজেকে আলাদা করবেন।

আপনি যখন  ব্রেইনস্টর্ম করবেন তখন ডিকশনারি অথবা থিসৌরাস ইউজ করতে ভুলবেন না। এমনকি আপনি অন্যান্য ভাষায় শব্দ বিবেচনা করতে পারেন। আপনি আরও ধারণার জন্য শপিফায়  বিজনেস নেম জেনারেটরের মতো একটি টুলস ইউজ করতে পারেন। একবার আপনার লিস্ট হয়ে যাওয়ার পর আপনি নামগুলোকে ন্যারো ডাউন করতে পারেন এটি আপনার বিজনেস এর জন্য ভালো কাজ করবে। এটি একটি পেইনস্ট্যাকিং প্রসেস, তবে আপনি যখন আপনার নিউ বিজনেস , ওয়েবসাইট বা ব্লগ শুরু করবেন তখন আপনি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন।

এটি শর্ট,সিম্পল, এবং মনে রাখতে বা লিখতে ইজি হয় এমন রাখতে হবে

আপনি কি কখনও অসম্ভব বড় নাম দিয়ে কোনও ওয়েবসাইট  দেখেছেন? এটি মনে রাখা কঠিন এবং সাধারণত সঠিকভাবে বানান করা অসম্ভব। এখন আপনি এমন কিছু কোম্পনি সম্পর্কে চিন্তা করুন যেগুলোর আপনি প্রায়ই প্রশংসা করে থাকেন। তাদের সকলের মধ্যে একটা কমন জিনিস রয়েছে আর তা হলো শর্ট নেইম।  

তাছাড়া বানানটিও মনে রাখতে হবে। আপনার ফেভরিট আইডিয়ার  বানানটি পরিবর্তিত করার জন্য এটি টেম্পটিং হতে পারে তবে কাস্টমারদের মনে রাখতে “Q” এর জায়গায় একটি ” K ” ব্যবহার করা কঠিন হতে পারে,বিশেষত এমন একটি নতুন বিজনেস এর জন্য যাদের অনলাইনে কোনও প্রেজেন্স স্টাব্লিশড হয়নি।

আপনার লিস্টটি ন্যারো ডাউন করার সাথে সাথে অন্যান্য আরও কিছু আইডিয়া রয়েছে যেগুলো মনে রাখবেন :

  • এটা কি স্মরণীয়?
  • এটি কি ট্রেডমার্ক-এবল?
  • এটি কি  বর্ণনামূলক?
  • আপনার নামটি  দিয়ে কি আপনার লোগো হবে?

ডোমেইন নেম গুলোর জন্য পুরো ইন্টারনেট সার্চ করুন

ফাইনাল নেম সিলেক্ট করার আগে আরেকটা বিষয় আপনাকে কনসিডার করতে হবে তা হলো আপনার ডোমেইন নেম এভেইলেবল আছে কি না। আপনার বিজনেস এর জন্য যদি .com গুরুত্বপূর্ণ হয় তবে ইতিমধ্যে এটি ইউজ হচ্ছে কিনা তা জানার জন্য আপনি রিসার্চ করতে পারেন। এভেইল্যাবিলিটি ডিসকভার করার জন্য গো ড্যাডি ডোমেইন সার্চ, নেম বয়, অথবা নেম মেশ এমন কিছু ডোমেইন নেম সাজেশন টুলস আপনি ইউজ করতে পারেন। 


তবে আপনি যদি আপনার বিজনেস নেম আইডিয়া এর জন্য .com ডোমেইন খুঁজে না পান তাহলে চিন্তিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। ইক্সাক্ট ডোমেইন খুঁজে পাওয়া কিছুটা ডিফিকাল্ট এবং প্রায়ই এই ডোমেইন গুলো অনেক দামি হয়ে থাকে। কাস্টমার এখন বিভিন্ন URL (ইউআরএল) অভ্যস্ত হয়ে উঠছেন। যেমন নেট, ওআরজি, বা বিআইজেড ইত্যাদি। তাছাড়া আপনি সোশ্যাল মিডিয়া চেক করে দেখতে পারেন রিলেভেন্ট কিছু এভেইলেবল আছে কি না।

খুব সংকীর্ণ বা আক্ষরিক নাম গুলো এভোইড করুন

আপনি এমন একটি  বিজনেস  নেম  চুজ করতে চাইবেন যেটি আপনার বিজনেস  এর মানে প্রকাশ করবে, সেক্ষেত্রে  খুব ছোট বা আক্ষরিক বিজনেস  নাম আপনার গ্রোথ এর সাথে সাথে বাধা সৃষ্টি করতে পারে। আপনি এখন থেকে পাঁচ বছর পর আপনার কোম্পানিটি কে কোথায় দেখতে চান তা বিবেচনা করুন। আপনি টি-শার্ট সেলিং এর মাধ্যমে শুরু করতে পারেন, তাছাড়া আপনি  হোম ডেকোর বা ফোন ক্যাসেস  ও সেল করতে পারেন। আপনার বিজনেস  এর সাথে গ্রো করার এবিলিটি আছে এমন নাম পছন্দ করতে হবে। আপনি যদি আপনার প্রোডাক্ট লাইন বা ওভারঅল বিজনেস লক্ষ্য গুলি প্রসারিত করতে চান তবে আপনি লাইনটি রিব্র্যান্ডিংয়ের হেডেক এড়াতে পারবেন।

সে ইট আউট লাউড

লোকেরা সহজেই বানান করতে পারে এমন বিজনেস  নেম চুজ করা যেমন গুরুত্বপূর্ণ, তেমনি আপনার এমন একটি নাম দরকার যা সহজেই উচ্চস্বরে বলতে পারে। এটি কাগজে ভাল লাগতে পারে তবে আপনার বিজনেস  নেম  কীভাবে উচ্চারণ করা যায় তা নিয়ে যদি মানুষ অনিশ্চিত হয় বা লাইভ ইভেন্ট বা অন্য কোনো মার্কেটিং প্রমোশন এর সময় এটি ভাল না শোনায় তবে এটি আপনার বিজনেস  এর জন্য সঠিক নাম নাও হতে পারে। পরিবার এবং বন্ধুদের কাছে এটি উচ্চস্বরে বলার অনুশীলন করুন এবং এটি শোনতে ভাল লাগছে কি না তা নিশ্চিত করুন। এছাড়াও, আপনি যখন উচ্চস্বরে এটি বলবেন, নিশ্চিত হন যে যারা এটি শুনছেন তারা আপনার বিজনেস  নেম বানান কীভাবে করতে হয় তা নিয়ে কনফিউজ হচ্ছে কি না।

ট্রেন্ডই নামগুলির এভয়েড করুন

ট্রেন্ড খুব দ্রুত আসে আবার খুব দ্রুত চলে যায়। আপনি যদি আপনার বিজনেস  নেম লেটেস্ট কোনো ক্রেজ এর উপর সিলেক্ট করে থাকেন তাহলে ছয় মাস পর আপনি নিজেকে ডাউন লাইন এ দেখতে পাবেন কারণ তখন অন্য কিছু ট্রেন্ডই থাকবে। ব্লগ নেমিং এর ক্ষেত্রে ও  এটি সেম। আপনার বিজনেস  এর পরিবর্তন, আপনি যে প্রোডাক্ট সেল করছেন এবং লং-টার্ম গ্রোথ এবং সাকসেস ম্যাসেজ এর জন্য নামটি যথেষ্ট পরিমাণে উন্মুক্ত হওয়া উচিত।

খুব বেশি জেনেরিক হবেন না

আপনার বিজনেস  এর জন্য সঠিক নাম খুঁজে পাওয়া কিছুটা কঠিন  এবং আপনি এটিকে সহজ করে তুলতে এবং আপনার নতুন কোম্পানিকে জেনেরিক রাখতে “দ্য টি-শার্ট স্টোর” বা এমন কিছু  ইউজ করতে পারেন। আপনার বিজনেস  নেম যদি খুব বেশি জেনেরিক হয় তাহলে যে  সমস্যাটি হয় তা হলো এটি খুব সহজেই ভুলে যায়। তাছাড়া সিমিলার নেম এর অন্যান্য বিজনেস  এর মধ্যে আপনি হারিয়ে যাবেন। আপনার নতুন বিজনেস  এর  সাফল্যের জন্য অনলাইনে দাঁড়িয়ে থাকা অপরিহার্য!

জিওগ্রাফিক নেমগুলির সাথে কেয়ারফুল থাকতে হবে

অনেকেই তাদের বিজনেস নেম এর পার্ট  হিসাবে প্রায়ই লোকেশন চুজ করে থাকে। এটি লোকাল বিজনেস  বা কোম্পানিগুলোর ক্ষেত্রে ছোট লোকাল নিশ লক্ষ্য করে খুব ভাল কাজ করে। তবে যদি আপনার লং-টার্ম গোল হয় একটি বড় অনলাইন অডিয়েন্স কে সার্ভ করার তাহলে এটি আপনাকে বাধা দিতে পারে। লোকাল বা জিওগ্রাফিক ওয়ার্ড এর জন্য এটি শর্ট-টার্ম এ  দ্রুত উইন করতে পারে তবে বেশিরভাগ কোম্পানির ক্ষেত্রে এটি সময়ের সাথে সাথে কাজ করে না। 

মিনেসোটা ম্যানুফ্যাকচারিং এবং মাইনিং তারা তাদের নামের অংশ হিসাবে লোকেশন দিয়ে বিজনেস  শুরু করেছিল এটি  একটি অসাধারণ উদাহরণ। বিজনেস  এর  শুরুতে, নামটি পুরোপুরি কাজ করেছিল কারণ এটি যে রাজ্যে শুরু হয়েছিল তার দিকে এটি ফোকাস ছিল। যাইহোক তাদের বিজনেস  বেড়ে যাওয়ার ফলে তা মিনেসোটা রাজ্য ছাড়িয়ে যায় তখন তাদের একটি  নতুন নাম প্রয়োজন হলো তাই এখন সেই বিজনেস  হয়ে  গেল ৩ এম।

নামের উপর ফিডব্যাক নিন

আপনি যখন দুটি বা তিনটি নেম সিলেক্ট করে ফেলবেন তখন  এমন কিছু লোকের কাছ থেকে ফিডব্যাক নিতে পারেন যাদেরকে আপনি ট্রাস্ট করেন। যদি পসিবল হয় এমন কিছু লোক কে চুজ করুন যারা আপনার ফিউচার কাস্টমার হতে পারে।  ফাইনাল ডিসিশন নেয়ার আগে যদি তারা নাম পছন্দ করে তাহলে বেস্ট ফিডব্যাক এর জন্য তাদের বেশ কয়েকটি প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করুন।

তাদেরকে জিজ্ঞেস করুন :

  • এটা কি স্মরণীয়?
  •  কিভাবে এটি বানান করতে হবে এটা নিয়ে কি আপনি কনফিউজ ?
  • এটি কোন দিক থেকে কি কনফিউজিং মনে হচ্ছে ?
  • এটি কি ইনস্ট্যান্ট ইম্প্রেশন তৈরি করে?
  • আপনি যদি নামটি পছন্দ না করেন তবে আপনি কী পছন্দ করেন না?

কনক্লুশন

পারফেক্ট বিজনেস  নেম এর জন্য অনেক সময় এবং এনার্জি লাগে। অনেক বিজনেস  ওনারদের শুরু করার জন্য এটি কৌশলতম অংশ। তবে, এটিও গুরুত্বপূর্ণ যে আপনি যে বিজনেস  নেমই নেবেন না কেন, আপনি আপনার ফাইনাল ডিসিশন সম্পর্কে খুশি এবং উচ্ছ্বসিত থাকবেন। তারপর আপনার সাকসেসফুল ই-কমার্স বিজনেস  কে নেক্সট স্টেপ এ নিয়ে যেতে আপনি প্রস্তুত থাকবেন।

আপনার অনলাইন বিজনেস শুরু করতে প্রস্তুত?

আমরা সাহায্য করতে পারি! গিয়ারলঞ্চ এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই স্টোর সেটআপ করতে পারবেন। আমাদের ফুল সার্ভিস প্ল্যাটফর্মটি অনেক ই-কমার্স বিজনেস  ওনারদের কাছে জনপ্রিয় এবং পণ্যগুলিতে প্রচুর ডাইভারসিটি  অফার করে।

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

Monthly Live about Facebook Marketing

Here we covered how to do Facebook marketing in effective ways which will drive more traffics and how you can raise the possibility to increase

1000 T-shirt Mockup

এখানে আপনারা পাচ্ছেন ১০০০ টিশার্ট-এর ফ্রি মকআপ! আপনার পছন্দ অনুযায়ী যেকোনো ডিজাইন নিয়ে কাজ করতে পারবেন একদম ফ্রি-তে। তাই দেরি না করে ডাউনলোড করে নিন