10 EASY WAYS TO BOOST YOUR BRAND’S FACEBOOK PAGE

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

আপনার ব্র্যান্ডের ফেসবুক পেজ বুস্ট করার ১০ টি সহজ উপায়

সোশ্যাল নেটওয়ার্ক যখন তাদের অ্যালগরিদম আপডেট করে যে ব্র্যান্ডগুলো কাস্টমার অর্জন করতে ফেসবুকে উপর নির্ভর করে এমন অবস্থায় প্রতিবার তাদের ইমোশনাল চড়াই-উতরাই এক্সপিরিয়েন্স করতে হয়। আপডেট এর কারনে সাধারণত কম রিচ হয় এবং ভিজিবিলিটি বজায় রাখতে এডভার্টাইজমেন্ট এ আরও  ব্যয় করতে হয়।

এর মানে এই নয় যে, আপনার ফেসবুক থেকে আপনার ব্র্যান্ডের উপস্থিতি সরিয়ে নেওয়া উচিত, বিশেষত যদি সেখানে আপনার টার্গেট অডিয়েন্স থাকে। এছাড়াও, সাধারণ অডিয়েন্সদের জন্য আপনার বিজনেস সম্পর্কে আরও ইনফরমেশন সন্ধান করতে, আপনার ব্র্যান্ড সম্পর্কে অন্যরা কি অনুভব করে তা রিভিউ করতে এবং জনগনের কাছে ইনফরমেশন ডিস্ট্রিবিউট করার মাধ্যম হিসাবে ফেসবুক পেজ  একটি সহজ উপায় রয়েছে।

এর মানে এটি দাড়ায় না যে এডভার্টাইজমেন্ট গুলো তে আরও বাজেট এলোকেট করার আগে আপনাকে ফেইসবুক ফিচার এর প্রবলতা অনুসন্ধান করতে হবে।

এখানে আপনার ব্র্যান্ডের ফেসবুক পেজ বুস্ট করার ১০ টি সহজ উপায় রয়েছে।

১. আপনার পেজ এর হেডিং এ কল-টু-অ্যাকশন (সিটিএ) বাটন টেস্ট করুন।

কোন সিটিএ বেস্ট এনগেজমেন্ট রেট রেজাল্ট দেয় তা দেখার জন্য টেস্ট গুলো স্প্লিট করুন। ফেসবুক “Watch Video ,” “Shop Now  ,” and “Contact Us ” সহ আরও ১০টি অপশন অফার করে।

আপনার ব্র্যান্ডের জন্য সবচেয়ে বেস্ট অপশন গুলো ট্রাই করে দেখুন।  এছাড়াও, প্রতিটি সিটিএর ভিত্তিতে কাস্টমার আপনার কাছে কিভাবে পৌঁছেছে তা আপনি এডিট করতে পারবেন।

  • আপনার স্টোর এ  ট্র্যাফিক বুস্ট এর  প্রয়োজন হলে আপনার স্টোরফ্রন্টে এর লিঙ্কের সাথে “Shop Now” বাটন টেস্ট  করুন।
  • আপনার বিজনেস , প্রোডাক্ট  বা সার্ভিস সম্পর্কে মানুষদের ইনফরম করার প্রয়োজন হলে, “Contact Us”,  “Learn More “, বা “Send Message” সিটিএ ট্রাই  করুন।
  • আপনি যদি সরাসরি কন্টাক্ট  এর অফার দিতে চান, তাহলে “কল নাউ” বাটন বা “সেন্ড ইমেইল বাটন” অপশন দিলে ভালো হবে।

২. ভিডিও যুক্ত করুন এন্ড প্লে লিস্ট ক্রিয়েট করুন

ফেসবুকে ডাইরেক্ট আপলোড করা ভিডিওগুলি প্লেলিস্ট রাখা যেতে পারে। টিউটোরিয়াল, প্রোডাক্ট ফিচার, ডিআইওয়াই টিপস এবং আরও অনেক কিছু শো করার জন্য ফেসবুক দুর্দান্ত জায়গা যা আপনি সবকিছু নিউজফিডে দেখানোর সম্ভাবনা বাড়িয়ে তুলেছে (ফেসবুকে ডাইরেক্ট আপলোড করা ভিডিও গুলি বেশ পছন্দ করে, ইউটিউব এ নয়)।

৩। ছবিগুলো বিহাইন্ড-দা-সিন (বিটিএস ) এ  শেয়ার করুন

বিটিএস ফটোগুলো আপনার বিজনেস এ বাহ্যিক গঠন এবং ক্যারেক্টার দিবে যা আপনার কাস্টমার দের  আপনার আরও সহজে ট্রাস্ট বিল্ডিং এবং আইডেন্টিফাই করতে সহায়তা করবে। এখানে বিটিএস এর চার ধরণের কনটেন্ট আছে যা আপনার কনসিডার করা উচিত:

  • টীম বিল্ডিং

আপনার অডিয়েন্স এই কথা শুনে আরও বেশি থ্রিলড হবেন যে আপনার টিম একসাথে ভাল           কাজ করে কারণ কাজের সম্পর্কের মধ্যে  সম্মিলিত প্রচেষ্টা আপনার উত্পাদিত কাজের মধ্যে সমন্বয় করে.

  • প্রোগ্রেস

আপনার উইনগুলো শেয়ার করুন, তা নিউ অফিস, হায়ার , এওয়ার্ড, সার্টিফিকেট  বা আপনার টীম এর পক্ষে ইউনিক কিছু করুন। এই প্রোগ্রেস গুলোর স্ন্যাপশট গুলি দেখিয়ে আপনার অডিয়েন্সদের ইন্সপায়ার করুন এবং মোটিভেট করুন এবং প্রদর্শন করুন  যে আপনার বিজনেস মিডিয়াতে জায়গা করে নিচ্ছে ।

  • মজা

রসিকতা আপনার ব্র্যান্ডকে হিউম্যানাইজ করে যখন অডিয়েন্স আপনার ব্র্যান্ড এর সাথে রিলেট হতে পারে।  বাজসুমোর মতে, মজার কনটেন্ট  তিন ধরণের পোস্টে স্থান পেয়েছে যা অডিয়েন্স  এর  সাথে ইমোশনাল কানেক্ট করে।

  • কারণসমূহ

আপনার টিম গ্রাহ্য করে এমন কোন কারণ রয়েছে? আপনারা যা বিশ্বাস করছেন তার জন্য সক্রিয়ভাবে প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন এই বিষয়টি উপস্থাপন করুন। কনজিউমার যাই করেন তারা  আবেগ ও দৃঢ় বিশ্বাস এর ব্র্যান্ড চান।

৪. এক্সক্লুসিভ ডিল এবং ডিসকাউন্ট অফার দিন

স্পেশাল অফার প্রমোশন এর মাধ্যমে কাস্টমার দের আপনার ব্র্যান্ডের ফেসবুক পেজ এ  বার বার  ফিরে আসার সুযোগ দিন । ডিসকাউন্ট কোড সহ একটি ইমেজ ক্রিয়েট করুন (উদাঃ “গেট $৫ অফ আন্টিল ৯/৩০ উইথ এক্সক্লুসিভ কুপন!”), এবং আপনার প্রমো ল্যান্ডিং পেজ  বা ক্যাম্পেইন এ ডাইরেক্ট লিঙ্ক করুন।

লিমিটেড টাইম প্রমোশন ক্রিয়েটিং এর মাধ্যমে পেইজ ফলোইয়ার্সদেদ্রুত কাজ করতে বা মিস করতে এঙ্কারেজ করে থাকে। যাইহোক, এই ট্যাক্টিস স্প্যারিংলি ইউজ করুন এবং কনজিউমার প্রাইস দেয়ার পরিবর্তে আপনার ডিস্কাউন্টের জন্য ওয়েট করতে শিখবে।

৫. কনটেস্ট হোস্ট করুন

কাস্টমার দের এনগেজ  রাখতে মজাদার ছবি পোস্ট করুন  এবং ক্যাপশন কনটেস্ট  পরিচালনার চেষ্টা করুন। যে ইউজার এখনও আপনার ব্র্যান্ড কে  সাবস্ক্রাইব করেননি কনটেস্ট গুলি তাদেরকে রিচ করতে আপনাকে সহায়তা করবে। 

আপনার পেজ এ ডাইরেক্ট একটি সোশ্যাল কনটেস্ট হোস্ট করতে একটি তৃতীয় পক্ষের অ্যাপ্লিকেশন (উদাঃ উইশ পন্ড) ইউজ করুন। এটি আপনাকে পুনরায় মার্কেটিং জন্য ভ্যালুয়েবল কন্টাক্ট ইনফরমেশন কালেক্ট করতে সক্ষম করবে।

৬. অন্যান্য ফেসবুক পেজ গুলোর সাথে নিযুক্ত হন

অন্যান্য কানেক্ট পেজ গুলি তে লাইক দিন এবং পেজ গুলির সাথে আপনার পেজ  ইন্টারেক্ট করুন। লাইক বা ট্যাগ হওয়া পেইজ গুলি প্রায়ই ফেভার রিটার্ন করে এবং আপনার পেজ এ  রিটার্ন লাইক দেয় এন্ড মেনশন করে পোস্টগুলি, এবং অন্য ধরণের ক্রস-প্রমোশন, পার্টনারশিপ এবং কো-অথর পোস্ট গুলোর পসিবিলিটিজ ওপেন  করে।

৭. একটি ইম্পরট্যান্ট পোস্ট পিন করুন

ফেসবুক আপনাকে একটি পোস্ট “পিন” করতে এবং এটি আপনার পেজের টপ এ রাখতে দেয়। এটি আপনার অডিয়েন্স দেখার প্রথম পোস্ট এটি এনসিওর করে নির্দিষ্ট ক্যাম্পেইন বা প্রমোশন  জন্য এক্সপোজারকে সর্বাধিক সহায়তা করে।

আরও লিড তৈরি করতে আপনার কম্পেটিশন এর পাশাপাশি এই কৌশলটি ব্যবহার করুন। এমনকি যদি কোন ভিজিটর যদি এখন পর্যন্ত  আপনার পেজ পছন্দ না করে তবে তারা পরে শিখতে এবং কনটেস্ট এ অংশগ্রহণ করতে পারবে, পরবর্তী সময়ে তাদের কাছে রি-মার্কেট  করার সুযোগ তৈরি হতে পারে।

৮. অন্য কোনো মিডিয়া পেজ যুক্ত করুন

আপনার ব্র্যান্ড যদি ইনস্টাগ্রাম, পিন্টারেস্ট এবং টুইটারের মতো অন্যান্য সোশ্যাল চ্যানেলগুলিতে উপস্থিত থাকে তবে এগুলিকে আপনার পেজ এ যুক্ত করলে পটেনশিয়াল কাস্টমার  এবং ভক্ত আপনার কালচার এন্ড ব্র্যান্ডের একটি বড় প্রতিকৃতি দিতে পারে।

এটি আপনার অন্যান্য অ্যাকাউন্ট গুলোতে আপনার ভক্তদের এনকারেজ করে এনগেজ করার একটি সহজ উপায়।

৯. টেস্ট পোস্টিং টাইম এন্ড কনটেন্ট

অনলাইনে খুঁজে পাওয়া প্রতিটি রিসোর্স বা গাইড আপনাকে পোস্টের জন্য আলাদা সময় দেবে। তবে বুঝতে হবে যে আপনার বিজনেস এবং মার্কেটিং আলাদা এবং সুতরাং আপনার বেস্ট পোস্টের সময় গুলো সম্পূর্ণ আলাদা হতে হবে।

আপনার নির্দিষ্ট টার্গেট মার্কেট বিবেচনা করে সময় ব্যয় করুন। তারা কখন ফেসবুকে অ্যাক্টিভ থাকে? তাদের সময়সূচী দেখতে কেমন? আপনার পোস্টিং স্ট্র্যাটিজি প্রভাবিত করতে তাদের উত্তরগুলি ইউজ  করুন।

কোন পোস্টগুলি এনগেজমেন্ট বাড়ায় তা দেখতে স্ট্র্যাটেজিক স্প্লিট শুরু করুন। আপনি সোমবার, বুধবার এবং শুক্রবার নির্দিষ্ট ধরণের কনটেন্ট নির্দিষ্ট সময়ে পোস্ট করতে পারেন এবং সিম্পল শিডিউলে দিয়ে জিনিস গুলোকে সক্রিয় করতে পারেন। ৪ সপ্তাহ পর, সপ্তাহে একটা দিন অন্য দিনের  সাথে (উদাঃ সোমবারের পরিবর্তে মঙ্গলবার) স্যুইচ করুন এবং আরও ভাল পারফর্মেন্স দেখুন।

১০. ফেসবুক লাইভ

নতুন ফেসবুক ফীচারগুলি সাধারণত নিউজফিডে বেনিফিট বাড়ায় এবং ফেইসবুক লাইভ ও এর চেয়ে কম নয়। এর মানে, পেইড এডভার্টাইজমেন্ট বাদেও ফেসবুক লাইভ আপনাকে আপনার ভক্তদের কাছে পৌঁছানোর ভাল সুযোগ দেয়।

সিউর হতে পারছেন না ফেসবুক লাইভ কি কাজে ব্যবহার করবেন ? এর মধ্যে একটি ট্রাই করে দেখুন:

  • একটি এএমএ বা কস্টেইন এনসার সেশন হোস্ট করুন
  • একটি ইভেন্ট লাইভ স্ট্রিম করুন
  • আপনার নেক্সট প্রোডাক্ট আনবক্স করুন

Subscribe To Our Newsletter

Get updates and learn from the best

More To Explore

SUPERCHARGE YOUR SHOPIFY STORE

আপনার শপিফাই স্টোরটিকে সুপারচার্জ করুন গিয়ারলঞ্চ অ্যাপ্ এড করুন এবং একটি ই-কমার্স বিজনেস পরিচালনার জন্য আপনার প্রয়োজনীয় সব কিছুর অ্যাক্সেস দিন  — হাই কোয়ালিটি পিওডি

Baby Onesie

বেবি ওয়ানজি বেস কস্ট     প্রোডাক্ট ইনফরমেশন      আর্ট ওয়ার্ক এন্ড মকআপ     সাইজ গাইড  বেস কস্ট Tier Monthly Unit sale Price