Archive

Category Archives for "Tips & Tricks"

How to Gain Follower on Instagram Step by Step

How to Gain Follower on Instagram

To Gain Follower On IG:
1) Always post niche relevant and maintain a consistent style. (If u want to post portrait mode, maintain it. If you want to post landscape, maintain it) Consistence of your posting style will give your audience an ease and cool look so that if any audience visit your profile, he must follow you.

2) Study hashtag..... and select 30 hashtag according to the strength of your account. Make 2/3 set of 30 hashtag.

3) In your post description, always mention your IG profile name (Like "More at the @example )

4) Try to post something like call action which will push your audience to engage with your post I mean in comment section.

5) Everyday Follow at least 100 (who are under your niche). Remember at a time you should follow 60/hour but maintain it 40/hour.

6) Like others post and do comment. Comment should not like be "owao", "nice".... etc. These sounds spammy. Engage with them relevantly.

These 6 steps if u follow, Instagram algorithm will give youu a better platform to show up your account and you will be in better place among the audiences who are under your niche.

Note: Don't follow/Like other posts which are not under your niche. If u want, open another account for that.

Written By: Hasan Jamil

Member of GearLaunch Mastermind

Instagram Shadowban

মার্কেটিঙের ক্ষেত্রে Instagram আমাদের অনেক শক্তিশালী একটি প্লাটফর্ম। কিন্তু আমরা ফলোয়ার বারাতে গিয়ে বেশ কিছু ভুল করে বসি যার ফলশ্রুতিতে Instagram আমাদের account কে shadowban এ ফেলে দেয়।

Shadowban কি?

আপনি যখন Instagram এর Terms and condition এর কোন একটা বিষয় বেশ কিছুদিন ধরে violet করতে থাকবেন, তখন Instagram আপনার post গুলিকে অন্যের কাছে visible করবেনা। এমনকি আপনি যেসব hashtag ব্যাবহার করেছেন, সেখানেও সেই post গুলো একমাত্র আপনার follower ছাড়া আর কারো কাছে visible হবে না। আপনি সবকিছুই ঠিকমত করতে পারবেন but আপনার Post Engagement ৫০%-৬০% কমে যাবে। আপনি আগের মত follow ও করতে পারবেন না, এমনকি follower ও পাবেন না। এটাকেই বলে Shadowban.

এই shadowban, Instagram ছাড়া Twitter, reddit এসব social media তেও হয়ে থাকে।

shadowban এর ক্ষেত্রে Instagram Official authority সরাসরি মুখ না খুল্লেও তারা কিছুটা ইঙ্গিত দিয়েছে। আবার অনেক সময় এমনও হয় যে আপনি shadowban এর আওতায় পরেননি কিন্তু আপনার Engagement পুরবের মত আশানুরুপ নয়। এটার কারন হল, আপনি যেসব Hastag ব্যাবহার করছেন, তার কিছু hashtag হয়ত Broken Hastag (অর্থাৎ over crowded হওয়ার কারনে Instagram যেসব Hashtag কে তাদের algorithm থেকে remove করে দিয়েছে)। আবার মাঝে মাঝে Hashtag over crowded হওয়ার কারনে Instagram এর Algorithm এও কিছু ভুল show করে।

কিভাবে বুঝবেন আপনি Shadowban এর আওতায় পরেছেন?

আপনার recent যেকোনো post এ আপনি আপনার ইচ্ছামত (যেটা Instagram এ নাই) একটা hashtag ব্যাবহার করুন। Suppose, #test_your_name hashtag ব্যাবহার করতে পারেন। এরপর যে কিনা আপনার follower নয় তাকে বলুন এই Hashtag টি দিয়ে search করতে। যদি আপনার পোস্টটি সে খুজে না পায়, বা অই নামে কোন hashtag ই না দেখায়, তাহলে আপনি নিশ্চিত Shadowban এর আওতায়। আর খুজে পেলে, you are safe.

Shadowban এ না পড়ার জন্য কি করনীয়?

১। যেকোনো automation tool, bots এবং follower কেনা থেকে বিরত থাকুন।

২। Broken Hashtag ব্যাবহার করা থেকে বিরত থাকুন। কিভাবে চিনবেন কোনটা Broken Hashtag? আপনি যেসব Hashtag use করছেন প্রত্যেকটি individually search option এ গিয়ে search করুন। যদি show করে “not found”, তাহলে সেটি Broken Hashtag.

৩। প্রতিটি post এ always same hashtag use করবেন না এবং একই সংখ্যক hashtag use করবেন না। hashtag নিয়ে একটু research করুন এবং কয়েকটি set বানিয়ে রাখুন। Hashtag maximum ২৮ টি রাখুন। এবং এক এক post এ, এক এক সংখ্যক ব্যাবহার করুন।

৪। Hashtag কমেন্টে নয়, পস্টেই ব্যাবহার করুন।

৫। একবার পোস্ট করার পর সেটার description edit করা ঠিকনা।

৬। 60 Follow & Unfollow/Hour, 150 Like/Hour, 60 Comments/Hour এটা maintain করবেন। যদিও একদিনে 100 এর বেশি follow করাটা Instagram এ ঠিক নয়।

Shadowban এ পড়ে গেলে কি করবেন?

১। খুজে বের করুন আপনার আগের কোন একটি single post এ কোন Broken Hashtag আছে কিনা? থাকলে সেটি প্রথমে remove করুন।

২। সবরকম automation tool, bots এবং follower কেনা থেকে বিরত থাকুন। কোনটি use করে থাকলে Revoke Access করুন।

৩।আপনার account এর option থেকে report এ যান। সেখান থেকে select করুন “something Isn’t Working” তারপর আপনার feedback লিখুন যে “ My posts aren’t being categorized in the hashtags that I am using” ভুলেও mention করবেন না যে আপনার Engagement কমে গেছে বা আগের মত পাচ্ছেন না। কারন Instagram Really Doesn’t bother of your engagement.

৪। Temoparily আপনার account টি business account থেকে personal account এ switch করুন। আবার সব ঠিক হলে business account এ switch করতে পারবেন।

৫। ৭২ ঘন্টার জন্য Instagram এ সকল প্রকার activity থেকে বিরত থাকুন। No single Like, comment, post etc. Better হয় log out করে রাখুন। এই সময়টা আপনার Instagram এর Logarithm Reset হবে। তারপর আবার ব্যাবহার শুরু করুন এবং খুব বুঝে শুনে। others people এর সাথে কমেন্ট এ আপনার engagement বাড়ান। Instagram algorithm কে sense করতে দিন you are a human.

এভাবে ব্যাবহার করতে থাকুন, ইনশাল্লাহ তাহলেই আপনি Shadowban থেকে মুক্তি পাবেন।


কোন প্রশ্ন থাকলে জানাবেন, উত্তর দিতে চেস্টা করবো। ধন্যবাদ।

#GLrocks #HappyMarketing #BuildYourOwnBrand

Written By: Hasan Jamil

1

“নিশের ছয় নয়” By Raz

মার্কেটে গেছেন জুতা কিনতে। কিন্তু কোনটা কিনবেন, কোন ব্রান্ডের কিনবেন, কোন মার্কেট থেকে কিনবেন এমনকি কত টাকায় কিনবেন সিদ্ধান্ত নিতে হিমসিম খেয়ে যাচ্ছেন। এটা স্বাভাবিক, এমনটা অনেকেরই হয়। কেউ কেউ আছেন যারা মার্কেটে গেলে যেটা চোখে পরে সেটাই পছন্দ করে ফেলেন, আবার কেউ আছেন এক মার্কেট থেকে আরেক মার্কেটে ঘুরে বেড়াচ্ছেন কিন্তু কিচ্ছু পছন্দ করতে পারছেন না। অনেকেই আছেন যারা এইরকম সিদ্ধান্তহীনতায় ভোগার চাইতে নিজের বউকে বা বোনকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিতে পারলেই হাফ ছেড়ে বাঁচেন।

শুধু টি-শার্ট মার্কেটারগণই নন, অন্য প্লাটফর্মে যারা অনলাইন মার্কেটিং এর সাথে জড়িত তারা প্রায় সকলেই শুরুতে নিশ সিলেক্ট করতে গিয়ে এইরকম জুতা কেনার মতো অবস্থার সম্মুখীন হয়ে থাকেন। আপনি জিএল এর সাথে পড বিজনেসে জড়িত হয়েছেন বেশ কয়েকটি প্রোডাক্ট বিক্রির জন্য, যদিও মূলত টি-শার্টকে প্রাধান্য দেয়া হয়। তো প্রথমে আপনার জানার বিষয় এই প্রোডাক্টগুলো কোথায় এবং কাদের কাছে বিক্রি করবেন। আপনাকে জানতে হবে- আপনার ডিজাইন করা একটি টি-শার্ট কোন ব্যক্তি কিনতে পারে অথবা আপনার ডিজাইন করা একটি মগ কোন ধরনের লাইফ স্টাইলের সাথে অভ্যস্ত ব্যক্তিরা কেনার আগ্রহ দেখাবে- এসবই রিসার্চের বিষয়। রিসার্চ নিয়ে কথা বলার জন্য গ্রুপে এক্সপার্টদের অনেক রিসোর্স পাবেন।

আমাদের গ্রুপেই অনেকে আছেন নিশ সিলেক্ট করার ব্যাপারে দিধায় ভুগছেন অথবা অনেক নিশের ডিজাইন থাকলেও কোনটি নিয়ে মার্কেটিং শুরু করবেন সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না। আমি আপনাদের সাথে কিভাবে খুব সহজে নিশ খুজে বের করে ঐ নিশের অডিয়েন্সদের জন্য কিভাবে ডিজাইন ক্রিয়েট করা যায় এ বিষয়ে আলোচনা করবো।

প্রথমে আপনাকে মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলে দিতে হবে প্রচলিত একটা ধারণা- ‘অমুক নিশে অডিয়েন্স বেশি, তমুক নিশে কম’। অডিয়েন্স এর বাংলা করলে দারায় ‘যে প্রাণি পড়তে পারে, শুনতে পারে এবং দেখতে পারে’ lol অর্থাৎ আপনার আমার মতোই দু পায়ের মানুষ। দুনিয়ার সব নিশেই কম বা বেশি অডিয়েন্স আছে। আপনি প্রতিটি নিশের অডিয়েন্সের কাছে সেল আশা করলেও কোনো নিশের প্রত্যেকটা পাবলিকের কাছে আপনার প্রোডাক্টটি সেল আশা করতে পারেন না। লাখ লাখ অডিয়েন্সকে টার্গেট করে আমরা সেল আশা করতে পারি খুব বেশি হলে 10-10k ইউনিট। সুতরাং আপনি যে নিশই সিলেক্ট করেন না কেনো আপনার কাঙ্খিত সেল উক্ত নিশেই সম্ভব। আপনি কিভাবে সঠিক ডিজাইন করে আপনার নিশের টার্গেটেড অডিয়েন্সের কাছে পৌছাবেন সেটা আলাদা বিষয়। মনে রাখবেন, আপনি যে বাজেটে ডিজাইন করছেন, যে বাজেটে মার্কেটিং করছেন সেটা US বা UK তে অবস্থান করে সম্ভব না। সুতরাং US বা UK এর অডিয়েন্স আপনার ডিজাইন করা প্রোডাক্টটি কেনার জন্য অপেক্ষা করছে।

নিশ এবং সাব নিশ খুজে বের করার পদ্ধতি :

আমি আপনাদের 10/5 টা ওয়ে না দেখিয়ে মাত্র একটা ওয়ে দেখাবো। এই লিংকে ক্লিক করুন- www.cafepress.com/+clothing লিংক দেখেই বুঝতে পেরেছেন আমি ক্যাফে প্রেসের কথা বলছি। ক্যাফেপ্রেস সাইটের বা দিকে SHOP BY INTEREST অর্থাৎ ক্যাটাগরি দেখতে পাবেন। ধরা যাক Hobbies এ ক্লিক করেছেন। বা দিকেই খেয়াল করুন Hobbies এর সাব নিশ গুলো দেখতে পাবেন। এবার Hobbies নিশটাকে সাব নিশে ন্যারো ডাউন করতে থাকুন। যেমন- Hobbies > Art > Drawing > Cartoon > Vintage Cartoon এইভাবে। ব্যস হয়ে গেলো নিশ সিলেকশন ।

নিশকে ন্যারো ডাউন করে সাব নিশে কনভার্টের প্রাকটিক্যাল উদাহরণ :

‘জিএল মাস্টারমাইন্ড গ্রুপে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোক টি-শার্ট বিজনেসের সাথে জড়িত।’

ধরুন আমি জিএল মাস্টারমাইন্ড গ্রুপের জন্য একটা টিশার্টের ডিজাইন করলাম।আমি যদি ডিজাইনে ম্যাসেজ দেই `I love my car, I've tee business'। কে কে কিনবে টিশার্টটা? সম্ভবত বেলাল ভাই ছাড়া আর কেউই না (বেলাল ভাইয়ের প্রাইভেট কার আছে কিনা আমি জানিনা)। অর্থাৎ গ্রুপে যাদের টি বিজনেস এবং কার দুটোই আছে শুধু তারাই এই ম্যাসেজের ডিজাইন করা টিশার্ট কিনবে।

টিশার্টের ম্যাসেজটার দিকে খেয়াল করুন, আমি তিনটা বিষয় কাভার করেছি। জিএল মাস্টারমাইন্ড গ্রুপের অডিয়েন্সকে টার্গেট করেছি এবং এখানে যারা টি বিজনেসের সাথে জড়িত + যাদের প্রাইভেট কার আছে তাদের জন্য ডিজাইন করেছি। এখানে টি বিজনেস ইন্টারসেক্ট করেছি প্রাইভেট কারের সাথে এবং অডিয়েন্স হিসেবে টার্গেট করেছি জিএল মাস্টারমাইন্ড গ্রুপের পিপলদেরকে।

উল্লেখ্য, টি বিজনেস কিন্তু মূলত ‘বিজনেস’ এর সাব নিশ। আবার টি বিজনেসেরও সাব....সাব...সাব...সাব..... নিশ আছে। যেমন- বেসিক টি বিজনেস, প্রিমিয়াম টি বিজনেস, ব্লাঙ্ক টি বিজনেস। এগুলোরও সাব নিশ আছে- বেসিক গিলডেন টি বিজনেস, প্রিমিয়াম ভি-নেক টি বিজনেস, ব্লাঙ্ক ওমেন টি বিজনেস ইত্যিাদি।

ডিজাইনের ম্যাসেজটাকে যদি সাব নিশে ন্যারো ডাউন করি কেমন দেখাবে- `I love my primo x2, I've premium tee business'

আপনি একটা নির্দিষ্ট ক্যাটাগরির অডিয়েন্সকে টার্গেট করবেন এবং তাদের অন্তত ২টা ইন্টারেস্টের দিকে খেয়াল রেখে ডিজাইন করবেন। যেটাকে বলা হয় ইন্টারসেক্ট। আমি আগেই বলেছি যে, সঠিক ডিজাইন করে আপনার নিশের ‘টার্গেটেড অডিয়েন্সের’ কাছে পৌছাতে হবে। মূলত প্রোডাক্ট বিক্রির সমস্ত রহস্যই লুকিয়ে থাকে ‘টার্গেটেড অডিয়েন্সের’ কাছে।

অতঃপর............

ঠান্ডা মাথায় চিন্তা করতে থাকুন, USA তে সমস্ত পাবলিকই কিন্তু কোনো না কোনো সময় টি-শার্ট পরে থাকে অথবা কফি পান করে। আপনি চাইলেই তো USA তে সমস্ত পাবলিককে টার্গেট করে একটা ডিজাইন করতে পারেন, যেমন- একটা USA এর পতাকা দিয়ে টিশার্ট ডিজাইন করে ফেললেন। না, আপনি এটা করতে গেলে লস খাবেন। বড় বড় মার্কেটারগণ এভাবে বিজনেস করতে পারলেও আপনার আমার দ্বারা সম্ভব নয়। কারণ সমস্ত USA এর পাবলিককে টার্গেট করে এ্যাডস্ দিতে গেলে সম্ভবত বিল গেটস্ এর ব্যাংক একাউন্টের এক্সেস প্রয়োজন হবে। ফ্রি মার্কেটিং এর চিন্তা করলে, গণচীনের সমস্ত পাবলিককে হাই স্পিড ইন্টারনেট সহ বসিয়ে দিতে হবে, অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াগুলো বাদ দিলেও শুধু ফেসবুকের গ্রুপ আর পেজগুলোতে এঙ্গেজড হবার জন্যও মাসের পর মাস বছরের পর বছর সময় লেগে যাবে। এতবড় বাজেট আপনার পক্ষে যদি ম্যানেজ করা সম্ভব হয় তাহলে আলাদা কথা, যদি সম্ভব না হয় তাহলে কি করবেন? নিশকে ন্যারো ডাউন করে আপনার অডিয়েন্সকে ছোটো করতে থাকুন এবং অন্য কোনো নিশের সাথে ইন্টারসেক্টের মাধ্যমে টার্গেটেড অডিয়েন্সকে ফিল্টার করতে থাকুন।

মনে হচ্ছে মূল বিষয় থেকে সরে এসেছি, এবার একটা সামারি টেনে দেখা যাক কিছু শিখতে পেরেছি কি না। বলা হয়েছিল পৃথিবীর সমস্ত নিশেরই অডিয়েন্স আছে, অডিয়েন্সের সাইজ কম বা বেশি যাই হোক না কেনো। নিশ যা খুশি তাই সিলেক্ট করুন। আপনার নিশের অডিয়েন্সের অতিরিক্ত ইন্টারেস্টের দিকে খেয়াল রাখলেই আপনার প্রোডাক্টের বিক্রির সম্ভাবনা বেড়ে যাবে।

তো ভাইয়েরা আপনারা যারা এতোদিন দিধায় ছিলেন কোন নিশ নিয়ে কাজ করবেন, আমি আপনাদের দিধাটাকে আরো একধাপ বাড়িয়ে দিলাম। আমরা যেহেতু জানি যে, নিশ মানেই বিষয় বা ইন্টারেস্ট। তো এখন আপনাদের প্রশ্ন হওয়া উচিৎ ‘কোন দুইটা, তিনটা অথবা চারটা নিশ নিয়ে কাজ করবো?’

উত্তর পাবার জন্য আবার শুরু থেকে পড়তে থাকুন।

QnA with Top sellers from Vietnam

তিনজন টপ সেলারদের সাথে আপনাদের প্রশ্নগুল নিয়ে আলচনা করেছিলাম ।

যা শুধু মাস্টার মাইন্ড group এ শেয়ার করেছিলাম


নিন সেটি পাব্লিক করে দিলাম । তাদের কাজের পদ্ধতি সম্পর্কে কিছু আইডিয়া পাবেন

Tips for Beginners By Mahedi Hasan

যারা অনেকদিন ধরে টি-বিজনেসে কাজ করছেন কিন্তু সফলতা পাচ্ছেন না তাদের জন্যই এই পোষ্ট। আপনারা জেনে গিয়েছেন গিয়ারলঞ্চ বেশি কিছু নতুন প্রোডাক্ট এনেছে। আপনারা সেগুলো নিয়ে কাজ করবেন।

১। যেকোন একটি নিশ নেন। নিশ রিসার্স নিয়ে গ্রুপে পোষ্ট রয়েছে।
২। সেই নিশের উইনিং ডিজাইনগুলো খুঁজে বের করুন। এক্ষেত্রে, Wanelo, Google Image, Pinterest, Facebook Search এর সহায়তা নিতে পারেন।
৩। এবার ডিজাইনগুলো কিছু মডিফাই করে যে প্রোডাক্টের সাথে ভালো মানাবে [টি-শার্ট ছাড়া] সেটাতে আপলোড করে দিন।
৪। মার্কেটিং আরম্ভ করে দিন।
৫। ক্রিয়েটিভিটি দেখানোর অনেক সময় পাবেন, এখন টু-পাইস কামিয়ে পেইডে চলে আসেন।

কোন সমস্যা হলে S.M.Belal ভাইকে ট্যাগ করুন

আবারো বলছি যারা নতুন এটা তাদের জন্য। এক্সপার্টরা নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন।​

Free Traffic Method by Jayanta Das

বেলাল ভাইয়ের Free Traffic marketing ভিডিও এবং মেহেদেী ভাইয়ের অসাধারণ Tips গুলো দেখার পর থেকে চেষ্টা করছিলাম কিভাবে Social site গুলোতে Free Traffic Buildup করা যায়। পথিমধ্যে ৫টা ফেসবুক একাউন্ট ব্লক হয়েছিল, কিছুটা হতাশও ছিলাম তবুও আবার নুতন করে শুরু করলাম।সবাই যখন ডিজাইন নিয়ে ব্যাস্ত আমি তখন কিভাবে সোসাল সাইটগুলোতে ট্রাফিক বাড়ানো যায় সেটা নিয়ে ব্যাস্ত কারণ আসলে আমি ভালো ডিজাইন জানি না।ওদিকে ঢাকার বাইরে থাকা এবং কিছুটা পেশাগতকারনে গত সপ্তাহের Gearlaunch এর মিটআপ সুযোগ মিস করায় খুব খারাপ লাগছিল।

এরই মাঝে বিভন্ন সোসাল সাইট যেমন Facebook,Twitter, Instagram,Pinterest ইত্যাদি সাইটগুলোতে কিভাবে Free Traffic বাড়ানো যায় সেই চেষ্টা করছিলাম।সেই চেষ্টার ফল হিসেবে নিশ রিলেটেড একটি ফেসবুক পেজ খোলা ছিল কিন্তু এগুতে পারছিলাম না,তারপরও ফ্রি ট্রাফিকের মেথডগুলো মেনে চলে কাজ করার চেষ্টা করছিলাম।

গতকাল রাতে ছোট একটা ভিডিও ঐ পেজে আপলোড দিয়ে নিশ রিলেটেড কয়েকটি গ্রুপে শেয়ার করেছিলাম, তাতেই BOOM!! চোখের সামনে দেখছি লাইক,কমেন্ট শেয়ার এর বন্যা, মনে আছে মাত্র ১ ঘন্টার মধ্যে লাইক 5K ছাড়িয়ে গিয়েছিল।এখন মনে হচ্ছে Free Traffic Method এ সোসাল সাইটে এনগেইজমেন্ট বাড়ানো কোন ব্যাপার না। জাষ্ট আপনাকে ধৈয্য ধারণ এবং কিছুটা কৌশল অবলম্বন করে এগিয়ে যেতে হবে।

**তার মানে আপনি খেলবেন টেষ্ট এবং আর রান করবেন টি-২০ এর মতো

**নীচে স্ক্রিনশট দিলাম (আবার কেউ জিগাইযেন না কোন নিশ)

***যদিও অভাগা এখনো কোন গেঞ্জী বিক্রী করে নাই***

Again Thanks S.M.Belal Uddin & Mahedi Hasan vai. Happy free marketing.​

Tips Shared through webinar by S.M. Belal

যারা ওয়েবিনারে জয়েন করেছিলেন তাদের আমি ওই দিনের একজন singer এর কথা বলি যা ছিল ওই দিনের trend ।

হয়ত আমার কথায় আপনারা পাত্তা দেননি । আমি আমার ওই ঘটনার উপর করা ক্যাম্পেইনের result শেয়ার করছি । ওয়েবিনারের পর আমি এই অ্যাড রান করি , result না পেয়ে দুই দিন পর $20 লসে ad অফ করি । গতকাল রাতে $5 এ retargeting ad দেই (এখন ও চলছে) অ্যানড বুম ।

বাজারের সো কল্ড গুরুদের মত আমরা হাওয়া থেকে গল্প / আইডিয়া / strategy শেয়ার করি না, নিজের জিবন থেকে করি । তাই ফলো করলে বহুত ফায়দা হবে ।

PS : এটার campaign ডিটেইল (with targeting and design) mastermind group এ আজ রাতে শেয়ার করা হবে

Motivational Tips for Beginners-Mahedi Hasan

আসসালামু আলাইকুম।

সবাই নিশ্চয়ই ভালো আছেন। টি-শার্ট বিক্রি কি খুব কঠিন? মার্কেটিং কি খুব কঠিন?
এ দুটো কমন প্রশ্ন এবং এ দুটোই প্রধান প্রশ্ন।

আসুন একটা চটজলদি হিসেব সেরে নেই।
Gearlaunch Mastermind গ্রুপে বেলাল ভাই ফেসবুক মার্কেটিংয়ের উপর একটি ভিডিও দিয়েছেন। এখন কেউ যদি এই নিয়েমে সর্বোচ্চ ৩ মাস কাজ করে তাহলে সে একসাথে কমপক্ষে ১০০ শার্ট বিক্রি করতে পারবে। আমি বলতে চাচ্ছি ৩ মাসের আউটপুট। এখন ধরি ১০০ শার্টে আপনার প্রফিট হবে ১০০০ ডলার। অর্থাৎ প্রায় ৭৮০০০ টাকা। প্রতি মাসে ২৬০০০ টাকা। একেবারে কম নয়। আপনার কিন্তু ক্ষতি হচ্ছে না। আর এই টাকা ছাড়াও আপনি আরো কি পাচ্ছেন?
- একটি ডলার তৈরীর যন্ত্র
- প্রচুর ডাটা (ডলার তৈরীর কাঁচামাল)

এখন দেখেন কঠিন মনে হচ্ছে কি? আপনি প্রশ্ন করবেন?
অয় ভাই, মাস্টারমাইন্ড গ্রুপের লিংক হপে লিংক?

আসলে ভাই আমরা যারা মাস্টারমাইন্ড গ্রুপে আছি তারা সবাই চাই, আপনারাও আসুন আমাদের সাথে। দল ভারী হোক। কিন্তু কিছু যে শর্ত আছে।
এখানে যতগুলো ধাপ রয়েছে তার প্রথম ৪ টি ধাপ আপনাকে সম্পন্ন করতে হবে। কিভাবে? এখানে সবগুলো পাবেন